spot_img
28.3 C
Dhaka

১লা ডিসেম্বর, ২০২২ইং, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ
***১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত পুলিশের ‘বিশেষ অভিযান’***সোহরাওয়ার্দীতে পা‌কিস্তান আত্মসমর্পণ করায় বিএনপি সেখানে সমা‌বেশ কর‌তে চায় না : ড. হাছান মাহমুদ***বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত***জিতের বাড়ির সামনে এক ভিন্নরকম জন্মদিনের চিত্র***বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলায় এক্সেল কামালের ফাঁসি কার্যকর***চেক ডিজঅনার মামলা : হাইকোর্টের রায় আপিল বিভাগে স্থগিত***‘মিসেস ইউনিভার্সেস বাংলাদেশ-২০২২’ এর আয়োজক গ্রেফতার***করোনার টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী***যাচাইয়ের পর বিদ্যুতের দাম বাড়ানো নিয়ে সিদ্ধান্ত : নসরুল হামিদ***যশোরের ভৈরব নদে কুমিরের ‘রৌদ্রস্নান’ : সতর্ক থাকার আহ্বান

৯৭৪টি শিপিং কন্টেইনার দিয়ে তৈরি হল কাতারের ‘স্টেডিয়াম ৯৭৪’!

- Advertisement -

লাইফস্টাইল ডেস্ক, সুখবর ডটকম: ইতিহাসে প্রথমবার শীতকালে আয়োজিত হচ্ছে ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২। যার অন্যতম কারণ কাতারের ভয়াবহ তীব্র গরম আবহাওয়া। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে জুন-জুলাইয়ে গরম থাকে ৪০ থেকে ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। তাই ফুটবলের মহাযজ্ঞ শুরু হতে চলেছে নভেম্বর-ডিসেম্বরে।

কাতার জুড়ে এখন সাজ সাজ রব। জাক-জমক সাজে সাজিয়ে তোলা হয়েছে রাস্তা-ঘাট, বাজার থেকে হোটেল। ভিড় করতে শুরু করেছেন পর্যটকরাও। পাশাপাশি সাজিয়ে তোলা হয়েছে স্টেডিয়ামগুলিও। যেখানে বল পায়ে আগুন ঝড়াতে নামবেন রোনালদো-মেসি-নেইমার-এমবাপের মতো তারকারা।

নয়নাভিরাম স্টেডিয়ামগুলিতে রাখা হয়েছে রয়েছে অত্যাধুনিক ব্যাবস্থা। স্টেডিয়ামগুলির ভেতর রয়েছে ঠান্ডা করার ব্যাবস্থা। যা স্বস্তি দেবে খেলোয়াড় ও দর্শকদের। শুধু তাই নয় নজেল দিয়ে ঠান্ডা করা হবে মাঠ। কুলিং টেকনোলজির সমস্তটাই করা হবে সৌরশক্তি ব্যাবহার করে। যার দায়িত্বে রয়েছে কাতার বিশ্ববিদ্যালয়।

কাতারের লুসাইলের লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়াম, আল খোরের আল বায়াত স্টেডিয়াম, আল ওয়াকরাহের আল জানুব স্টেডিয়াম, আহমাদ বিন আলী স্টেডিয়াম, খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম এবং আল রাইয়ানের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম এছাড়াও স্টেডিয়াম ৯৭৪ এবং দোহার আল থুমামা স্টেডিয়াম। মোট আটটি স্টেডিয়ামে আয়োজিত হবে বিশ্বকাপ ২০২২।

চলুন জেনে নেয়া যাক স্টেডিয়ামগুলোর দর্শকাসন সংখ্যা ও কোন স্টেডিয়ামে কটি ম্যাচ আয়োজিত হবে-

১) লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়াম: নবনির্মিত এই স্টেডিয়ামের দর্শকাসন সংখ্যা ৮০, হাজার। মোট ১০টি ম্যাচ আয়োজিত হবে লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে। এই স্টেডিয়ামে আয়োজিত হবে বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ ও সমাপনী অনুষ্ঠান।

২) আল খোরের আল বায়াত স্টেডিয়াম: স্টেডিয়ামের দর্শকাসন সংখ্যা ৬০ হাজার। এই স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ৯টি ম্যাচ আয়োজিত হবে। এই স্টেডিয়ামেই আয়োজিত উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে আয়োজক দেশ কাতার ও ইকুয়েডর।

৩) আল ওয়াকরাহের আল জানুব স্টেডিয়াম: ২০১৯ সালে উদ্বোধন হওয়া এই স্টেডিয়ামের দর্শকাসন সংখ্যা ৪০ হাজার। মোট ৭টি ম্যাচ আয়োজিত হবে এই স্টেডিয়ামে।

৪) আল রায়ানের আহমাদ বিন আলী স্টেডিয়াম: দর্শকাসন সংখ্যা ৪০ হাজার। এই স্টেডিয়ামে মোট ৭টি ম্যাচ আয়োজিত হবে।

৫) খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম: ১৯৭৫ সালে উদ্বোধন হওয়া এই স্টেডিয়ামের দর্শকাসন সংখ্যা ৪০ হাজার। একসঙ্গে ৪০ হাজার দর্শক এই স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে বসে ম্যাচ উপভোগ করতে পারবেন। এটিই কাতারের আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। বহু ইতিহাসের সাক্ষী এই খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম।

৬) আল রাইয়ানের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম: এই মাঠে একসঙ্গে ৪০ হাজার দর্শক খেলা দেখতে পারবেন। বিশ্বকাপের ৮টি ম্যাচ আয়োজিত হবে এই স্টেডিয়ামে।

৭) দোহার স্টেডিয়াম ৯৭৪: ৪০ হাজার দর্শক আসন বিশিষ্ট রাস আবু আবুদ স্টেডিয়াম, যার নাম বদলে রাখা হয়েছে স্টেডিয়াম ৯৭৪। ৭টি ম্যাচ আয়োজিত হবে এই স্টেডিয়ামে। অদ্ভুত এই নাম দেওয়ার কারণ কাতারের আন্তর্জাতিক ডায়াল কোড (+৯৭৪) অনুযায়ী।

শুধু কি তাই, এই স্টেডিয়াম নির্মাণ করতে ঠিক ৯৭৪টি শিপিং কন্টেইনার ব্যবহার করা হয়েছে। জানা যায় বিশ্বকাপের পর এই স্টেডিয়াম ভেঙে ফেলা হবে। এবং কন্টেইনারগুলো কোন অনুন্নত দেশে দান করা হবে। যারা এটা ব্যবহার করে তাদের ফুটবল উন্নয়নে কাজে লাগাতে পারবে।

৮) দোহার আল থুমামা স্টেডিয়াম: টুপির মতো দেখতে এই স্টেডিয়ামের দর্শকাসন সংখ্যা ৪০ হাজার। ৮টি ম্যাচ আয়োজিত হবে এই স্টেডিয়ামে।

এম এইচ/

আরও পড়ুন:

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের নায়ক কে এই ঘানিম আল মুফতাহ

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ