spot_img
18 C
Dhaka

৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ২৩শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

৫১ বছর পরেও ইতিহাস থেকে কিছুই শিখেনি পাকিস্তান

- Advertisement -

ডেস্ক রিপোর্ট, সুখবর ডটকম: ১৯৭১ সালে এক রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মধ্য দিয়ে পাকিস্তান হারায় তার এক অংশ পূর্ব পাকিস্তান তথা বর্তমান বাংলাদেশকে। এ যুদ্ধ মূলত ছিল বাঙালি সাধারণ মানুষ বনাম পাকিস্তানি সামরিক বাহিনির। সাবেক পূর্ব পাকিস্তানের বাঙালি জাতীয়তাবাদী আন্দোলনকে দমন করার প্রচেষ্টায় পাকিস্তানি সেনাবাহিনি ১৯৭১ সালের শুরুতেই অপারেশন সার্চলাইটের মাধ্যমে হাজার হাজার নিরস্ত্র, নিরীহ বাঙালিদের হত্যা করে, শত শত নারীকে ধর্ষণ করে এবং এ ঘটনায় অনেক স্থানীয় লোক নিখোঁজ হয়। এই অপারেশন সার্চলাইট ছিল পাকিস্তানের পরিকল্পিত সামরিক অভিযানের সাংকেতিক নাম।

সময় পাল্টালেও পাকিস্তানের অবস্থা পালটায় নি। বর্তমানেও পাকিস্তান বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী, বিশেষ করে বেলুচদের বিরুদ্ধে এমন একাধিক অনুরূপ গোপন সামরিক অভিযান চালাচ্ছে। বেলুচ জাতিগোষ্ঠী পাকিস্তানের শক্তিশালী সামরিক বাহিনির দ্বারা ক্রমাগত নিপীড়িত হচ্ছে।

বেলুচরা নিজেদের স্বাধীন জাতি হিসেবে দাবি করে এবং পাকিস্তানকে অন্যায়কারী দখলদার হিসেবে বিবেচনা করে। আদিবাসী জনগোষ্ঠীদের দাবি পাকিস্তান তাদের প্রাকৃতিক সম্পদ সমৃদ্ধ অঞ্চলগুলোকে শোষণ করে যাচ্ছে। বেলুচদের রাজনৈতিক দাবির জবাবে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনি হাজার হাজার স্থানীয়দেরকে অপহরণ করে। প্রায় প্রতিদিনই নিখোঁজ ব্যক্তিদের বিকৃত লাশ পাওয়া যায়।

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিম অংশের পশতুন অঞ্চলও রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের শিকার হচ্ছে। এখানকার পশতুন তাহাফুজ আন্দোলন (পিটিএম) একটি জাতিগত আন্দোলন, যাদের দাবি পাকিস্তান তার সামরিক বাহিনিকে বারবার কৌশলগতভাবে ব্যবহার করে স্থানীয়দের নিপীড়ন করে যাচ্ছে।

তাছাড়াও পাকিস্তানের দক্ষিণে বাস করে জাতিগত সিন্ধি এবং মোহাজির (স্থানীয় উর্দু ভাষায় যার অর্থ অভিবাসী)। সিন্ধিদের উপরেও নির্বিচারে অত্যাচার চালাচ্ছে পাকিস্তান সামরিক বাহিনি। প্রায় প্রতিদিনই এখানকার স্থানীয়রা নিখোঁজ হচ্ছে এবং তাদের লাশটুকুও আর পাওয়া যাচ্ছে না।

অতীত ইতিহাস থেকে পাকিস্তান কোন শিক্ষাই নেয় নি। অতীতের ভুলের কারণে পাকিস্তানকে পূর্ব পাকিস্তান থেকে বিচ্ছিন্ন হতে হয়। তবুও পাকিস্তানের সামরিক বাহিনি তাদের অন্যায় কার্যক্রম থামায় নি। সবকিছুই বিবেচনা করে পাকিস্তানি বুদ্ধিজীবীদের মধ্যে একটি ধারণা জন্মেছে যে অচিরেই দেশের অন্যান্য অঞ্চলগুলো গৃহযুদ্ধের দিকে যেতে পারে এবং দেশটি আরো বিভক্ত হতে পারে। পাকিস্তান এখন বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম জনসংখ্যার সাথে সাথে একটি পারমাণবিক সশস্ত্র দেশও। দেশটিতে যে কোনও অস্থিতিশীলতা এই অঞ্চল এবং বৃহত্তর বিশ্বের জন্য মারাত্মক পরিণতি ডেকে আনতে পারে।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ