spot_img
19 C
Dhaka

৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ২২শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

২৬ বছর পর সালমানকে কেন ক্ষমা চাইতে বললেন সাবেক প্রেমিকা?

- Advertisement -

বিনোদন ডেস্ক, সুখবর ডটকম: সালমান খানের চলচ্চিত্রের ক্যারিয়ারের মতো তাঁর প্রেমিকাদের তালিকাও বেশ দীর্ঘ। মডেল ও অভিনেত্রী সংগীতা বিজলানি ও সোমি আলীর সঙ্গে এক সময় সালমানের গভীর প্রেম ছিল বলে গুঞ্জন শোনা যায়। সংগীতা অবশ্য এখনো সালমানের ভালো বন্ধু।

তবে সালমান খানের সঙ্গে ঐশ্বরিয়া রাইয়ের প্রেম নিয়ে বলিউডে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে। এই নায়িকার সঙ্গে সালমান খান ১৯৯৯ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত প্রেম করেন।

এরপর সালমান খান বলিউডের আরেক নায়িকা ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গেও অনেক দিন প্রেম করেছেন। সালমানের সেই প্রেমও এখন অতীত। এই নায়ক বর্তমানে রোমানিয়ার টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব ইউলিয়া ভানতুরের সঙ্গে প্রেম করছেন বলে গুঞ্জন শোনা যায়। একাধিক নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ালেও সালমান খান এখন অবধি বিয়ে করেননি।

এদিকে সোমি আলি হলেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত আমেরিকান অভিনেত্রী, লেখিকা, চলচ্চিত্র নির্মাতা, মডেল এবং একজন সমাজসেবী। সম্প্রতি এই অভিনেত্রী তার ইনস্টাগ্রামে ভাইজান খ্যাত বলিউড সুপারস্টার সালমান খান সম্পর্কে মুখ খুলে বিশ্ব মিডিয়ায় আলোচনায় এসেছেন।

১৯৯০ সালে সালমান খান যখন একের পর এক সিনেমা দিয়ে আলোচনার তুঙ্গে। তখন থেকে দীর্ঘ আট বছর সালমানের সঙ্গে সোমির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু পরে সেই সম্পর্ক যখন ভেঙে যায় তখন সালমানের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছিলেন সোমি। তিনি জানিয়েছিলেন, সালমান তাকে মারধর করতেন।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও শেয়ার করে জানিয়েছেন যে, সালমান খান আমার সঙ্গে যে সুন্দর ব্যবহার করেছিল তাতে মনে হয়েছিল আমি আমার পছন্দের একজন পারফেক্ট মানুষ পেয়েছি। মানুষ যখন কাউকে ভালোবাসে তখনতো সে এটাই চায় যে ভালোবাসার মানুষটি যেনো তার সবকিছুর খেয়াল রাখে। তাকে কখনো যেনো অসম্মান না করে।

কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত পরে উপলব্ধি এবং বুঝতে পারলাম যে আমি এমন একটি মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক করছি যে শুধু আমাকে তার স্বার্থের জন্য ব্যবহার করছে। সম্পর্কের কোনো ভবিষ্যৎ বা সুন্দর সমাপ্তি এখানে ঘটবে না।

সোমি আলি সালমান প্রসঙ্গে আরও বিস্ফোরক মন্তব্য করে বলেন, সালমান তো একবার আমার ঘাড়ে কামড় দিয়ে দাঁত বসিয়ে দিয়েছিল আর বলেছিল ছেলেরাই একমাত্র বিশ্বাসঘাতকতা করতে পারে মেয়েরা নয়।

সেই দিনের সেই ব্যবহার আর কথা শুনে আমি চমকে গিয়েছিলাম। এই ধরনের নৃশংস মানসিকতা কারও থাকতে পারে! ‘দীর্ঘ আট বছর সালমানের সঙ্গে থাকাটা তার জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল ছিল মনে করেন অভিনেত্রী সোমি আলি।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, প্রথম দিকে সালমান তাকে নিজের প্রেমিকা হিসেবে মেনে নিতে এক প্রকার নারাজ ছিলেন। পরে যখন বন্ধু বান্ধবদের সামনে সবার পীড়াপীড়িতে সালমান তার সম্পর্কের কথা স্বীকার করে নেন ঠিক তখন থেকে সালমান বন্ধু বান্ধব বা অন্যান্য জায়গায় সোমি আলীকে অপমান অপদস্ত করা শুরু করেন। বলিউড ভাইজান খ্যাত অভিনেতা সালমান খানের বিরুদ্ধে পাহাড় সমান অভিযোগ রয়েছে সোমি আলির।

তিনি আরও জানান ভারতে তার শো ‘ফাইট অফ ফাইট’-কে একসময় সম্পূর্ণ ব্যান বা নিষিদ্ধ করে দিয়েছিলেন সালমান খান। সালমান অন্যদের কাছে সবচেয়ে দয়ালু এবং সুন্দর হতে পারে তার মানে এই নয় যে তিনি আমার বা অন্য কিছু লোকের মতো ছিলেন।

সোমি আলি তার লেটেস্ট ভিডিওতে সালমান খানকে সবার সামনে ক্ষমা চাওয়ার দাবি করেন। সালমান খান তার সঙ্গে যে শারীরিক, মানসিক ও অন্যান্য অত্যাচার করেছেন তার জন্য প্রকাশ্যে দিবালোকে সবার কাছে ক্ষমা চাইতে বলেছেন এই অভিনেত্রী। যাতে ভবিষ্যতে এই রকম ঘটনা অন্য করো জীবনে সে না ঘটায়।

সোমি আলির ইন্সটাগ্রামের পোস্টেকে ঘিরে এখন পর্যন্ত সালমান খানের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। বর্তমানে সোমি আলি ‘নো মোর টিয়ার্স’ নামে একটি অলাভজনক সংস্থা পরিচালনা করছেন।

এসি/ আই. কে. জে/

আরো পড়ুন:

রাজ্যের সঙ্গে হাস্যোজ্জ্বল রাজ-পরী

 

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ