spot_img
31 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

৭ই অক্টোবর, ২০২২ইং, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

স্বাস্থ্যবিধি না মানায় জরিমানার মুখে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

- Advertisement -

ডেস্ক রিপোর্ট, সুখবর ডটকম: ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইরে বলসোনারো বরাবরই করোনার বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিরূপ মন্তব্য করেছেন। এবার কোনো রকম স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই দেশটির মারানহাও প্রদেশে করলেন বিশাল জনসভা। সেখানে কোনো শারীরিক দূরত্বও বজায় রাখা হয়নি। মাস্ক পরেননি প্রেসিডেন্টসহ কেউই। এজন্য শাস্তিস্বরূপ তাকে জরিমানা করতে চলেছেন প্রদেশটির প্রশাসন।

করোনায় মোট মৃত্যুর দিক দিয়ে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। কোভিডবিধি কার্যকর করা নিয়ে বিভিন্ন সময় বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন প্রেসিডেন্ট বলসোনারো। এমনকি, করোনা টিকার প্রতিও অনীহা প্রকাশ করেন তিনি। পরে অবশ্য নিজেই করোনা আক্রান্ত হন। তবু বিধিনিষেধ মানার বালাই নেই তার।

মারানহো প্রদেশের প্রশাসন জানিয়েছে, গত শুক্রবার একটি অনুষ্ঠানে এই প্রদেশে যান প্রেসিডেন্ট বলসোনারো। সেখানে বহু মানুষের জমায়েত হয়। কিন্তু কারোর মুখে মাস্ক ছিল না। প্রেসিডেন্ট নিজেও মাস্ক পরেননি। দূরত্ববিধি মানেননি।

আরোও পড়ুন: যুদ্ধ বিরতি কার্যকর || গাজায় ‘বিজয়োল্লাস’

প্রদেশটির প্রশাসন আরও জানায়, আইনের চোখে সকলেই সমান। তাই নিয়মভঙ্গ করায় প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাকে জরিমানা করে হবে।

সূত্রের খবর, এ নিয়ে ইতোমধ্যে প্রেসিজডন্টের অফিসে চিঠি পাঠানো হয়েছে। জবাব দিতে ১৫ দিন সময় নিয়েছে বলসোনারোর অফিস।

করোনায় মোট মৃত্যুর দিক দিয়ে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। কোভিডবিধি কার্যকর করা নিয়ে বিভিন্ন সময় বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন প্রেসিডেন্ট বলসোনারো। এমনকি, করোনা টিকার প্রতিও অনীহা প্রকাশ করেন তিনি। পরে অবশ্য নিজেই করোনা আক্রান্ত হন। তবু বিধিনিষেধ মানার বালাই নেই তার।

মারানহো প্রদেশের প্রশাসন জানিয়েছে, গত শুক্রবার একটি অনুষ্ঠানে এই প্রদেশে যান প্রেসিডেন্ট বলসোনারো। সেখানে বহু মানুষের জমায়েত হয়। কিন্তু কারোর মুখে মাস্ক ছিল না। এমনকি, শারীরিক দূরত্বও বজায় রাখা হয়নি। প্রেসিডেন্ট নিজেও মাস্ক পরেননি। দূরত্ববিধি মানেননি।

প্রদেশটির প্রশাসন আরও জানায়, আইনের চোখে সকলেই সমান। তাই নিয়মভঙ্গ করায় প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাকে জরিমানা করে হবে।

সূত্রের খবর, এ নিয়ে ইতোমধ্যে প্রেসিজডন্টের অফিসে চিঠি পাঠানো হয়েছে। জবাব দিতে ১৫ দিন সময় নিয়েছে বলসোনারোর অফিস।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ