spot_img
28.3 C
Dhaka

১লা ডিসেম্বর, ২০২২ইং, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ
***১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত পুলিশের ‘বিশেষ অভিযান’***সোহরাওয়ার্দীতে পা‌কিস্তান আত্মসমর্পণ করায় বিএনপি সেখানে সমা‌বেশ কর‌তে চায় না : ড. হাছান মাহমুদ***বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত***জিতের বাড়ির সামনে এক ভিন্নরকম জন্মদিনের চিত্র***বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলায় এক্সেল কামালের ফাঁসি কার্যকর***চেক ডিজঅনার মামলা : হাইকোর্টের রায় আপিল বিভাগে স্থগিত***‘মিসেস ইউনিভার্সেস বাংলাদেশ-২০২২’ এর আয়োজক গ্রেফতার***করোনার টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী***যাচাইয়ের পর বিদ্যুতের দাম বাড়ানো নিয়ে সিদ্ধান্ত : নসরুল হামিদ***যশোরের ভৈরব নদে কুমিরের ‘রৌদ্রস্নান’ : সতর্ক থাকার আহ্বান

সত্যিকার মুক্তির জন্য লড়াই করেছিলেন বঙ্গবন্ধু : ইমরান খান

- Advertisement -

ডেস্ক রিপোর্ট, সুখবর বাংলা: পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নির্বাচনের দাবিতে লড়াই করছেন ক্ষমতাসীন সরকারের বিরুদ্ধে। আর তার এই লড়াইকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লড়াইয়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন ইমরান খান। আওয়ামী লীগ নেতা শেখ মুজিবুর রহমান যেভাবে সত্যিকার মুক্তির জন্য লড়াই করেছেন, তিনিও ঠিক সেভাবে লড়াই করছেন বলে মন্তব্য করেন। পাকিস্তানি পত্রিকা ডনের প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

নির্বাচনের দাবিতে ২৮ অক্টোবর থেকে লংমার্চ পালন করছে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) পার্টি। হাকিকি আজাদি-২ নামক এই লংমার্চের পঞ্চম দিন মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) গুঞ্জরাওয়ালায় সমাবেশে উপস্থিত হয়ে ইমরান খান বলেন, ‘নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগকে ক্ষমতার কর্তৃত্ব দেওয়া হয়নি। এর ফলে পাকিস্তানের পূর্বাংশ তথা পূর্ব পাকিস্তান ‘বাংলাদেশ’ নামে স্বাধীন রাষ্ট্র হয়ে যায়।’

আওয়ামী লীগ গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচনে জয়ের পরও সাংবিধানিকভাবে দেশ শাসনের অনুমতি না পাওয়ায় ১৯৭১ সালে পাকিস্তান কীভাবে দু’ভাগ হয়ে যায় তা মনে করিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগকে ‘নির্বাচনী ম্যান্ডেট’ দিতে অস্বীকৃতি জানানো হয়েছিল আর সেই কারণে দেশের পূর্বাঞ্চলের অর্ধেক পাকিস্তান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।’

তৎকালীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে বর্তমান পিটিআইয়ের তুলনা করে ইমরান খান আরও বলেন, ‘শেখ মুজিবুর রহমান এবং তার দল ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনে জিতেছিল। ক্ষমতা হস্তান্তর করার পরিবর্তে একজন চতুর রাজনীতিবিদ আওয়ামী লীগ এবং সেনাবাহিনীকে সংঘর্ষের পথে নামিয়ে দিয়েছিলেন। বর্তমানে নওয়াজ শরিফ ও আসিফ জারদারি একই ভূমিকা পালন করছেন।’

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ