spot_img
31 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ইং, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ
***বিশ্ব হার্ট দিবস আজ***জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়: স্নাতক ভর্তির সর্বশেষ রিলিজ স্লিপের মেধাতালিকা প্রকাশ ২ অক্টোবর***হেপাটোলজি এ্যালামনাই এসোসিয়েশনের উদ্যোগে লিভার ট্রানপ্লান্টেশন বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনার অনুষ্ঠিত***নাগরিকদের রাশিয়া ছাড়তে বলল মস্কোর মার্কিন দূতাবাস***‘সোনার তরী’র আজকের শিল্পী ইশরাত জাহান***নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে জাপান যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী***‘বাঁশরী’তে আজ গাইবেন পূরবী বিশ্বাস এবং মালিহা তাসফিয়া রোদেলা***টিভিতে দেখুন আজকের খেলা***আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগ আবারো বিজয়ী হবে: কাদের***শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিনে বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের বিভিন্ন কর্মসূচি পালন

রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে শুরু হলো কংগ্রেসের ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’

- Advertisement -

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, সুখবর বাংলা: দল থেকে একের পর এক দাপুটে নেতার প্রস্থান। সামনেই সভাপতি পদের ঘোষণা। রয়েছে একাধিক রাজ্যে হাইভোল্টেজ বিধানসভা নির্বাচন। এরপর ‘মেগা ফাইনাল’ ২০২৪ লোকসভা ভোট। এসব রাজনৈতিক সমীকরণের মধ্যেই রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে শুরু হলো কংগ্রেসের ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’ অভিযান।

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টায় তামিলনাড়ুর কন্যাকুমারীতে একটি সমাবেশের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন দলটির নেতারা। ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’র উদ্বোধনের একটি ভিডিও ক্লিপ প্রকাশ করেছে কংগ্রেস। দলটির টুইটার হ্যান্ডেলে প্রকাশিত ওই ভিডিওতে দেখা যায়, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর হাতে জাতীয় পতাকা তুলে দিচ্ছেন দলের অন্য নেতারা।

এ কর্মসূচিকে স্বাধীনতার পর ভারতের সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক আন্দোলন অভিহিত করে এক টুইটবার্তায় কংগ্রেস জানিয়েছে, রাহুলের হাতে জাতীয় পতাকা তুলে দেয়ার মধ্য দিয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন, রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট ও ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেল।

এনডিটিভি জানায়, এর আগে এ কর্মসূচির অংশ হিসেবে তামিলনাড়ুর শ্রীপেরুমবুদুরে বাবা ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর স্মৃতিসৌধ পরিদর্শন করেন রাহুল গান্ধী। খবরে বলা হয়, কন্যাকুমারী থেকে বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে পদযাত্রা শুরু হবে। শেষ হবে জম্মু-কাশ্মীরে গিয়ে। শেষ হতে সময় লাগবে ১৫০ দিন।

‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় কংগ্রেসের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে অংশ নেবেন কয়েক হাজার কর্মী-সমর্থক। দিনে ৬-৭ ঘণ্টা হাঁটবেন তারা। এভাবে তারা ১২টি রাজ্য ও ২টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে যাবেন। প্রায় ৩ হাজার ৫৭০ কিলোমিটার রাস্তার পুরো পথেই হেঁটে অংশ নেবেন রাহুল গান্ধী।

কংগ্রেস ভারতীয় উপমহাদেশের সবচেয়ে পুরোনো রাজনৈতিক দল। কিন্তু হিন্দুত্ববাদকে পুঁজি করে রাজনীতি করা ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) কাছে ভোটের রাজনীতিতে গত এক দশক ধরে ধরাশায়ী হয়েছে দলটি।

এমন প্রেক্ষাপটে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন সামনে রেখে দলের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করতে কন্যাকুমারী থেকে কাশ্মীর পর্যন্ত ভারত জোড়ো যাত্রা নামে এ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে কংগ্রেস।

চলতি বছরের মে মাসের মাঝামাঝি রাজস্থানের উদয়পুরে কংগ্রেস শীর্ষস্থানীয় নেতাদের তিন দিনব্যাপী সম্মেলনে এ কর্মসূচির বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। এতে বেকারত্বের মতো বিষয়গুলো তুলে ধরা হবে। কংগ্রেস জানিয়েছে, এ কর্মসূচির সঙ্গে কোনো নির্বাচনের যোগ নেই। দেশকে ঐক্যবদ্ধ করতেই এ যাত্রা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর তথ্যমতে, যাত্রাকালে কোনো হোটেলে থাকবেন না কংগ্রেস নেতানেত্রীরা। তাদের থাকার জন্য ৬০টি কনটেইনারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে এসি, শোবার জায়গা ও টয়লেট।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনমতে, পাঁচ মাসের এ যাত্রায় আবহাওয়ার গতিপথ নজরে রেখে বিভিন্ন বন্দোবস্ত করা হয়েছে। প্রতিদিন ৬-৭ ঘণ্টা হাঁটবেন নেতাকর্মীরা। পুরো দিনকে দুই ভাগে ভাগ করে চলবে হাঁটা। সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ১০টা। আর দুপুর সাড়ে ৩টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত। এভাবে প্রতিদিন ২২ থেকে ২৩ কিলোমিটার হাঁটবেন সবাই।

আরো পড়ুন:

বড় ধরনের পরিবর্তন আসছে ট্রাসের মন্ত্রিসভায়

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ