spot_img
22 C
Dhaka

২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৯শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

যে কারণে লেবার পার্টি থেকে ব্রিটিশ বাংলাদেশি এমপি রূপা হক বহিষ্কার

- Advertisement -

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, সুখবর বাংলা: বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত লেবার দলীয় ব্রিটিশ এমপি রূপা হককে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। লেবার পার্টির কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে চ্যান্সেলর কোয়াসি কোয়ার্টেং সম্পর্কে এক মন্তব্যের কারণে তাঁর বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে রূপা চ্যান্সেলর ‘সুপারফিশিয়ালি’ কালো বলে মন্তব্য করলে তীব্র সমালোচনার সম্মুখীন হন। এই প্রেক্ষাপটে তাঁর দল লেবার পার্টি বিষয়টি তদন্ত এবং তদন্তকালীন সময়ে তাঁকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার ও দলীয় হুইপ পদ থেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

পার্টি কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে কোয়াসি কোয়ার্টেং সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে মিসেস হক আরো বলেছিলেন, ‘আপনি যদি আজকের প্রোগ্রামে তার কথা শুনতে পান, তবে আপনি জানতে পারবেন না যে তিনি কালো। ’

টোরি পার্টির চেয়ার জেক বেরি তার এই মন্তব্যকে বর্ণবাদী এবং ঘৃণ্য বলে অভিহিত করেছেন। ডেপুটি লেবার নেত্রী অ্যাঞ্জেলা রেনার বলেছেন, এই মন্তব্য ‘অগ্রহণযোগ্য’।

বিবিসির পলিটিক্স লাইভ প্রোগ্রামের সঙ্গে কথা বলার সময়, তিনি বলেন, ‘মিসেস হকের ক্ষমা চাওয়া উচিত, যখন পার্টির পররাষ্ট্র বিষয়ক মুখপাত্র ডেভিড ল্যামি মন্তব্যটিকে ‘দুর্ভাগ্যজনক’ বলে বর্ণনা করেছেন’। অ্যাঞ্জেলা বলেন, ‘আমি নিজে এমন মন্তব্য করতাম না। ’

প্রাক্তন চ্যান্সেলর এবং টোরি এমপি সাজিদ জাভিদ বলেছেন যে তিনি ক্লিপটি দেখে ‘আতঙ্কিত এবং দুঃখিত’। বলেছেন, বর্ণবাদী এবং যারা আমাদের বিভক্ত করতে চায় তাদের উৎসাহিত করা উচিত নয়।

সংসদীয় দল সদস্য পদ স্থগিত হওয়ায় রূপা হক এখন একজন স্বতন্ত্র সাংসদ হিসেবে সংসদে বসবেন।

ইলিং সেন্ট্রাল ও একটনের এমপি রূপা সোমবার সন্ধ্যায় ‘হোয়াটস নেক্সট ফর লেবারস এজেন্ডা অন রেস’ শিরোনামের একটি প্রান্তিক ইভেন্টে মন্তব্য করার পর এটি রেকর্ড করা হয়।

অডিও ক্লিপটি Guido Fawkes ওয়েবসাইটে প্রকাশ হয় লিভারপুলে লেবার পার্টি সম্মেলনে স্যার কেয়ার স্টারমারের বক্তৃতা শুরুর কয়েক মিনিট আগে।

প্রশ্নোত্তর অধিবেশন চলাকালীন রূপা বলেছিলেন, ‘তিনি অতিমাত্রায় একজন কালো মানুষ, কিন্তু তার মধ্যে আবার কমন অনেক মিল রয়েছে। ব্যয়বহুল প্রিপ স্কুল ইটনে গেছেন তিনি, অধ্যায়ন করেছেন দেশের শীর্ষ বিদ্যালয়গুলোতে। আপনি যদি আজকের প্রগ্রামে তার কথা শুনতে পান তবে বুঝতেই পারবেন না যে তিনি কালো। ’

ঘানার বংশদ্ভূত মি. কোয়ার্টেং এই মাসের শুরুতে চ্যান্সেলর হয়েছেন। তার জন্ম পূর্ব লন্ডনে।

এদিকে, বহিষ্কারের বিষয়টি জানার পর এক টুইটে রূপা হক লিখেছেন, ‘আমি কাওয়াসি কাওয়ারতেংয়ের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা চেয়েছি। এছাড়া আমার ওই কথায় যারা কষ্ট পেয়েছেন আমি তাদের কাছেও ক্ষমা চাইছি।’

এম/

আরো পড়ুন:

সেনা অভ্যুত্থানের গুজব উড়িয়ে প্রকাশ্যে শি জিনপিং

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ