spot_img
20 C
Dhaka

২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৩ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

যে কারণে বাড়ছে পাক-আফগান আন্তঃসীমান্ত সংঘর্ষ

- Advertisement -

ডেস্ক রিপোর্ট, সুখবর ডটকম: সাম্প্রতিক সময়ে পাকিস্তানের সাথে আফগানিস্তানের আন্তঃসীমান্ত সংঘর্ষ বৃদ্ধির মধ্যে, পাকিস্তানি সিনেটর ফারুক নায়েক তালেবান শাসনের প্রতি দেশের কৌশল পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানান।

এই মাসের শুরুর দিকে, পররাষ্ট্র বিষয়ক সিনেটের স্থায়ী কমিটির বৈঠকের সময়, সিনেটর ফারুক নায়েক কাবুলে পাকিস্তানের মিশন প্রধানের উপর হামলার ঘটনায় নিন্দা প্রকাশ করেন।

নায়েক দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, “পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে গিয়ে আমরা আফগানিস্তানের মুখপাত্র হিসেবে কাজ করি কিন্তু তারাই সুযোগ পেলে পাকিস্তানের বিরোধিতা করে, এমনকি সুযোগ পেলে আমাদের বিরুদ্ধে বন্দুকও হাতে তুলে নেয়।”

গত শুক্রবার, পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তর, ইসলামাবাদে আফগান কর্মকর্তাদের তলব করে সম্প্রতি চমন-স্পিন বোল্ডাক এলাকায় আন্তঃসীমান্ত গোলাগুলির ঘটনার জন্য তীব্র নিন্দা জানায়।

চমন সীমান্তে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনির সশস্ত্র সংঘর্ষে একজন নিহত এবং ১৫ জন আহত হয়।

সংঘর্ষের পর চমন কর্তৃপক্ষ এলাকায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে বাজার বন্ধ করে দেয়। এ সংঘর্ষে আহতদের মাঝে দুই নারী ও শিশু রয়েছে।

পাকিস্তান সামরিক বাহিনির সংবাদ মাধ্যম শাখা, চমনের সাধারণ মানুষের উপর নির্বিচারে হামলা চালানোর জন্য আফগানিস্তানকে দায়ী করে। অন্যদিকে আবার তালেবানরা আগ্রাসনের অভিযোগ এনে এ দায় পাকিস্তানের উপর চাপিয়ে দেয়।

গত মাসেও, পাক-আফগান সীমান্ত, যা ফ্রেন্ডশিপ গেট নামেও পরিচিত, সেখানে আফগানিস্তান সৈন্যরা গুলি চালালে সাময়িকভাবে সে সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় দুইজন নিরাপত্তা কর্মী আহত হয়।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ