spot_img
24 C
Dhaka

১লা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৮ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ
***অনলাইন অধ্যয়নের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে নিয়েছে চীন***নতুন বাজেট উন্নত ভারতের শক্তিশালী ভিত্তি তৈরি করবে : নরেন্দ্র মোদী***পেশোয়ারে মসজিদে বিস্ফোরণ: গোয়েন্দা প্রধানের অপসারণ দাবি পাকিস্তানিদের***২৬ জনকে চাকরি দেবে ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান***ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে আনোয়ার গ্রুপ***ভালো মানুষ আর টাকাওয়ালা পাত্র খুজছেন রাইমা সেন!***বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার দিলেন প্রধানমন্ত্রী***সিডনি প্রবাসী শিল্পী ইলোরা খানের প্রথম মৌলিক গান ‘মুছে ফেলে দাও’ (ভিডিও)***বইমেলায় সাতটি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন প্রধানমন্ত্রীর***বাংলা সাহিত্যের সব বই অনুবাদের চেষ্টা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

মোরগ ভোর হওয়ার আগে কিভাবে বোঝে এবং ডাকাডাকি করে?

- Advertisement -

ডেস্ক নিউজ, সুখবর ডটকম: মোরগের দেহে একটি অভ্যন্তরীণ ঘড়ি রয়েছে। শুধু মোরগের না, আমাদের দেহেও এই অভ্যন্তরীণ ঘড়ি রয়েছে যেটিকে বিজ্ঞানের ভাষায় সার্কেডিয়ান রিদম বলা হয়। এই ঘড়িও ২৪ ঘন্টা বেজড। আমাদের মনোভাব, হরমোনের মাত্রা, দেহের উষ্ণতা এবং সার্বিক বিপাকীয় কার্যাবলীর ওপর এই সার্কেডিয়ান রিদমের বড় ধরনের প্রভাব রয়েছে। আর এই সার্কেডিয়ান রিদমের কারণেই দীর্ঘ ভ্রমণের পর দিনের বেলা ঘুমালে শরীর খারাপ হয় এবং মানসিক অসুস্থতা দেখা দেয়৷ এই সার্কেডিয়ান রিদমে গবেষণা করেই বিজ্ঞানীরা ইনসোমনিয়া সারানোর উপায়, ওষুধ খাওয়ার সঠিক নিয়ম ইত্যাদি আবিষ্কার করেছেন।

এছাড়াও এই গবেষণায় ২০১৭ সালে ৩ জন নোবেল প্রাইজ পান। এই সার্কেডিয়ান রিদম কন্ট্রোল করে আমাদের মস্তিষ্কের হাইপোথ্যালামাস নামক অংশটি। মূলত, মোরগের দেহে থাকা এই সার্কেডিয়ান রিদমের কারণেই ভোর হওয়ার সাথে সাথে ভোরের আলো ছাড়াই বুঝে যায় ভোর হয়েছে এবং ডাকাডাকি শুরু করে। আর যদি এক জায়গায় অনেকগুলো মোরগ থাকে, তাহলে সেখানের আলফা মোরগটি বা সবচেয়ে শক্তিশালী মোরগটি ডাকা শুরু করবে এবং তাকে সবাই অনুসরণ করবে।

এম এইচ/ আই. কে. জে/

আরও পড়ুন:

যে কারণে নিয়মিত খালি পেটে পেঁপে খাবেন

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ