spot_img
19 C
Dhaka

৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ২৩শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

মেট্রোরেল উদ্বোধন: আগারগাঁও-দিয়াবাড়ীর বাসিন্দাদের জন্য পুলিশের ৭ নির্দেশনা

- Advertisement -

ডেস্ক নিউজ, সুখবর ডটকম: আগামী ২৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মেট্রোরেলের এমআরটি-৬ লাইনের দিয়াবাড়ী-আগারগাঁও অংশ উদ্বোধন করবেন। মেট্রোরেল উদ্বোধনের প্রস্তুতি বিষয়ে গত মঙ্গলবার সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরীর সভাপতিত্বে সচিবালয়ে বৈঠক হয়েছে। এতে সিদ্ধান্ত হয়, প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে আগারগাঁও থেকে দিয়াবাড়ী অংশ সাজানো হবে। দিয়াবাড়ীতে স্টেশনের ৩০০ মিটারের মধ্যে সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।

তবে আর্থিক কৃচ্ছ্র সাধনে মেট্রোরেলের উদ্বোধন অনুষ্ঠান হবে সাদামাটা। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মতো জাঁকজমক থাকবে না বলে জানিয়ে সড়ক পরিবহন বিভাগ সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রীর কর্মসূচিতেও কিছুটা পরিবর্তন আসতে পারে। আগারগাঁও থেকে দিয়াবাড়ীতে সড়কপথে যেতে পারেন সরকারপ্রধান। সেখানে ভাষণ ও উদ্বোধন ফলক উন্মোচনের পর প্রথম যাত্রী হিসেবে টিকিট কেটে প্রধানমন্ত্রী ট্রেনে চড়ে আগারগাঁও স্টেশনে যাবেন।

উদ্বোধনের দিন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় আগারগাঁও থেকে দিয়াবাড়ী পর্যন্ত মেট্রোরেল সংলগ্ন এলাকার ভবনের বাসিন্দাদের জন্য ৭টি নির্দেশনার কথা জানিয়েছে পুলিশ। ইতোমধ্যে ওইসব এলাকার বাসিন্দাদের কাছে পুলিশ এই ৭ নির্দেশনা সম্বলিত একটি নোটিশ বিতরণ শুরু করেছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পল্লবী জোনের সহকারী কমিশনার আব্দুল হালিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিতরণ করা নোটিশে যে নির্দেশনাগুলো রয়েছে তা হলো-

১. কোনো ভবন, বিল্ডিং বা ফ্ল্যাটে আগামী ২৯ ডিসেম্বরের আগে নতুন কোনো ভাড়াটিয়া উঠতে পারবেন না।

২. কোনো ভবনের কমার্শিয়াল স্পেসে আগামী ২৮ ডিসেম্বর নতুন কোনো অফিস, দোকান, রেস্টুরেন্ট খোলা যাবে না।

৩. ২৮ ডিসেম্বর মেট্রোরেল সংলগ্ন কোনো ভবনের ব্যালকনিতে, ছাদে কাপড় শুকাতে দেওয়া যাবে না এবং কেউ দাঁড়াতে পারবেন না।

৪. ওইসব এলাকার ভবন, বিল্ডিং বা ফ্ল্যাটে ওইদিন কোনো ছবি বা ফেস্টুন লাগানো যাবে না।

৫. মেট্রোরেল সংলগ্ন কোনো ভবনের কমার্শিয়াল স্পেসে বা আবাসিক হোটেলে ২৮ ডিসেম্বর কেউ অবস্থান করতে পারবে না।

৬. ওই এলাকার কোনো ভবন বা ফ্ল্যাটে যদি কোনো বৈধ অস্ত্র থাকে, তা ২৫ ডিসেম্বরের মধ্যে থানায় জমা দিতে হবে।

৭. মেট্রোরেলের দুই পাশের সব ব্যাংক বা এটিএম বুথ ২৮ ডিসেম্বর সকাল থেকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান চলাকালীন সময় পর্যন্ত বন্ধ রাখতে হবে।

উদ্বোধনের পরেরদিন থেকে শুরু হবে যাত্রী পরিবহন। প্রথম দিকে এই রুটের ৯টি স্টেশনের তিনটি দিয়াবাড়ী, পল্লবী ও আগারগাঁওয়ে যাত্রী ওঠানামা করবে।

মেট্রোলের নির্মাণ ও পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে সরকারি কোম্পানি ডিএমটিসিএল। কোম্পানি সূত্র জানিয়েছে, জনবল সংকট ও অপ্রতুল প্রস্তুতির কারণে আপাতত সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত কয়েক দফা বিরতি দিয়ে চার ঘণ্টা ট্রেন পরিচালনা করা হতে পারে। পুরো অপারেশনে যাওয়ার পর ভোর সাড়ে ৫টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত সাড়ে তিন মিনিট অন্তর চলবে ট্রেন। ২০২৪ সালে এমআরটি-৬ লাইন মতিঝিল পর্যন্ত চালুর পর পিক আওয়ারে ঘণ্টায় ৬০ হাজার এবং দিনে ৪ লাখ ৮৩ হাজার যাত্রী হবে বলে সমীক্ষায় বলা হয়েছে।

এম/

আরো পড়ুন:

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে মিয়ানমার বিষয়ক প্রস্তাব গৃহীত

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ