spot_img
26 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

২রা অক্টোবর, ২০২২ইং, ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

মাটির পাত্রে পানি খেলে যেসব উপকার পাওয়া যায়

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর বাংলা: গরমে শরীরকে সতেজ ও প্রাণবন্ত করতে ঠান্ডা পানির বিকল্প নেই। আমরা সাধারণত গরমকালে ঠান্ডা পানি ফ্রিজ থেকে নিয়ে খেয়ে থাকি। যা মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়। অনেক সময় তা অতিরিক্ত ঠান্ডা থাকায় নানা রকম সমস্যা সৃষ্টি করে। এক্ষেত্রে মাটির পাত্রে পানি খেলে ক্ষতির বদলে উপকার পাওয়া যায় বেশি। পানিও থাকে সহনীয় ঠান্ডা।

একটা সময় বাড়িতে বাড়িতে মাটির পাত্র, কলস বা মটকা ছিল। যা দিন দিন বিলুপ্তির পথে। তবে এখনো গ্রামেগঞ্জে বা কিছু বাড়িতে মাটির কলস বা মটকা দেখা যায়। যদিও এর ব্যবহার অনেকটা কমেছে তারপরও বাড়িতে রাখতে পারেন মাটির কলস বা মটকা। কেননা মাটির পাত্রে রাখা পানি পান করা বেশি স্বাস্থ্যকর।

নগর সভ্যতার প্রসারের সঙ্গে সঙ্গে মাটির হাঁড়ি কিংবা কলসি থেকে পানি পান করার অভ্যাস কমে এসেছে। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রাচীন এই পদ্ধতিতে পানি পানের সুফল এক নয়, একাধিক। বিশেষ করে গরমকালে এই মাটির পাত্রে পানি রাখলে পানি যেমন ঠান্ডা থাকে, তেমনই উপকৃত হয় শরীরও।

আসুন জেনে নেই, মাটির পাত্রে পানি খেলে যেসব উপকার পাওয়া যেতে পারে।

পানি ঠান্ডা রাখাঃ মাটির পাত্রে অসংখ্য আনুবীক্ষণিক ছিদ্র থাকে। এই ছিদ্রগুলি দিয়ে অল্প পরিমাণ পানি চুঁইয়ে বাইরের পৃষ্ঠে আসে ও বাষ্পীভূত হয়। পানি বাষ্পীভূত হওয়ার সময় কিছুটা তাপ শোষণ করে নেয়। ফলে ঠান্ডা থাকে পাত্র। সেই সাথে পানিও থাকে ঠান্ডা।

অম্লক্ষারের ভারসাম্য রক্ষাঃ খাবার হজমের জন্য অনেক রকম অ্যাসিড উৎপন্ন হয়। মাটির পাত্রে পানি রাখলে পানিতে ক্ষার জাতীয় উপাদানের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। ফলে এই পানি খেলে পেটের বিভিন্ন প্রকার অ্যাসিড কিছুটা প্রশমিত হয়, অম্ল-ক্ষারের ভারসাম্য বজায় থাকে।

খনিজ পদার্থ সরবরাহঃ মাটির পাত্রে পানি রাখলে পানিতে হরেক রকমের খনিজ পদার্থ মিশে। ফলে দেহে প্রয়োজনীয় খনিজ উপাদানগুলির অভাব হয় না। ভালো থাকে বিপাক প্রক্রিয়াও।

পরিবেশ বান্ধবঃ প্লাস্টিকের বোতলের চেয়ে মাটির পাত্র বেশি ভালো হওয়ার অন্যতম কারণ, এটা পরিবেশ বান্ধব। এছাড়াও কাচের বোতলের চেয়ে মাটির বোতল ব্যবহার করা সাশ্রয়ী।

প্রাকৃতিক ক্ষারঃ মাটি প্রাকৃতিক ক্ষার সমৃদ্ধ এবং তা যখন পানির অম্লতার সংস্পর্শে আসে তখন তা পিএইচ’য়ের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। পানির সুষম পিএইচ বা অম্ল-ক্ষার নিয়ন্ত্রণে রেখে গ্যাসের ব্যথা থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে।

আরোগ্য লাভঃ খনিজ উপাদান এবং ইলেক্ট্রম্যাগনেটিক শক্তিতে সমৃদ্ধ থাকে কাদা-মাটি। তাই মাটির পাত্রে পানি সংরক্ষণ করা হলে তা পানির আরোগ্য ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।

বিপাক বাড়ায়ঃ প্লাস্টিকের পরিবর্তে মাটির গ্লাস বা পাত্রে পানি পান করা হলে তা টেস্টোস্টেরনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। ফলে তা শরীরের বিপাক বাড়াতে সাহায্য করে।

প্রাকৃতিকভাবে ঠাণ্ডা পানিঃ কাদা-মাটিতে থাকে অণুবীক্ষণিক ছোট ছোট ছিদ্র। ফলে এই কাদা-মাটির তৈরি পাত্রে পানি রাখা হলে বাষ্পীভবন ঘটে। আর এই প্রক্রিয়ায় পানি ঠাণ্ডা হয়।

তবে মনে রাখতে হবে, সবার স্বাস্থ্য সমান নয়। তাই মাটির পাত্র থেকে পানি খেলে যদি কোনো বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়, তবে অবিলম্বে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ