Wednesday, December 1, 2021
Wednesday, December 1, 2021
Homeস্বাস্থ্যমডার্নার বুস্টার ডোজে তুলনামুলকভাবে অ্যান্টিবডি বেশি: গবেষণা

মডার্নার বুস্টার ডোজে তুলনামুলকভাবে অ্যান্টিবডি বেশি: গবেষণা

danish

ডেস্ক রিপোর্ট, সুখবর বাংলা: যারা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নিয়েছেন, বুস্টার ডোজ হিসেবে ফাইজার অথবা মডার্নার টিকা তাদের জন্য কার্যকর হতে পারে। গবেষণা বলছে, যারা মডার্নার টিকার বুস্টার ডোজ নিয়েছেন, তাদের শরীরের অ্যান্টিবডি ফাইজার বা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার বুস্টার ডোজের তুলনায় বেশি। স্থানীয় সময় বুধবার যুক্তরাষ্ট্রে পরিচালিত এক গবেষণার প্রাথমিক ফলাফলে এমন তথ্য জানা গেছে। খবর এএফপির।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ (এনআইএইচ) ওই গবেষণা পরিচালনায় যুক্ত। জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা প্রয়োগের অনুমতি এখন যুক্তরাষ্ট্রে নেই। সে ক্ষেত্রে বুস্টার ডোজ হিসেবে অন্য টিকা বা মিশ্র টিকা ব্যবহারের ফলাফল জানার অপেক্ষায় ছিল এনআইএইচ।

৪৫৮ প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির ওপর এ গবেষণা চালানো হয়। তারা কমপক্ষে ১২ সপ্তাহ আগে ফাইজার, মডার্না অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নিয়েছিলেন। এই তিনটি দলকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়। তিন দলকে বুস্টার ডোজ হিসেবে ফাইজার, মডার্না অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা দেওয়া হয়। বুস্টার ডোজ নেওয়ার ১৫ দিন পর গবেষকেরা তাদের অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করেন।

গবেষণার ফলাফল গবেষকদের রীতিমতো আশাবাদী করে তোলে। দেখা গেছে, যারা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নিয়েছেন, তাদের একই ধরনের টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার পর অ্যান্টিবডি চার গুণ বেড়েছে। ফাইজারের টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার পর অ্যান্টিবডি বেড়েছে ৩৫ গুণ। আর মডার্নার টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার পর অ্যান্টিবডি বেড়েছে ৭৬ গুণ।

গবেষণায় আরও জানানো হয়, যারা মডার্নার টিকা নিয়েছিলেন, তাদের অ্যান্টিবডির মাত্রা ফাইজার অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের তুলনায় বেশি ছিল। বুস্টার ডোজ নেওয়ার পর কারও শরীরে বড় ধরনের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি বলেও গবেষণা প্রতিবেদনে জানানো হয়।

তবে গবেষণাটি এখনো পর্যালোচনা করা হয়নি। এ গবেষণায় কিছু সীমাবদ্ধতাও রয়েছে। গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা ছিল কম। গবেষণায় ১৫ দিন ধরে অংশগ্রহণকারীদের পর্যবেক্ষণ করা হয়। কিন্তু এরপর রোগ প্রতিরোধক্ষমতাও কমতে পারে। এসব বিষয় গবেষণায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের হিউস্টনে বেলর কলেজ অব মেডিসিনের শিক্ষক পিটার হোটেজ টুইটে বলেন, সংক্ষিপ্ত পরিসরে এ গবেষণার ফলাফলের ভিত্তিতে বড় কোনো সিদ্ধান্তে না পৌছানোই ভালো। তিনি বলেন, এনআইএইচের গবেষণার ফলাফল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) বিশেষজ্ঞ দল আলোচনা করেছে। আগামী বৃহস্পতি বা শুক্রবার বুস্টার ডোজের জন্য মডার্না ও জনসন অ্যান্ড জনসনের আবেদন বিবেচনা করার কথা রয়েছে।

ফাইজারের বুস্টার ডোজ টিকা এর মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রে অনুমোদন পেয়েছে। ৬৫ বছর বা তার বেশি বয়সী উচ্চঝুকিতে থাকা মানুষ এবং যারা করোনাভাইরাসে সংক্রমিত ব্যক্তিদের বেশি সংস্পর্শে আসেন, তাদের জন্য এ টিকার বুস্টার ডোজ অনুমোদন পেয়েছে।

আরো পড়ুন:

করোনার উৎস খুঁজতে উহানবাসীর রক্তের নমুনা পরীক্ষা করবে চীন

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments