spot_img
33 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

৫ই অক্টোবর, ২০২২ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

ভালোবাসা দিবসের সাতকাহন !

- Advertisement -

সুখবর ডেস্ক : গোটা বিশ্বে আজ উদ্‌যাপিত হচ্ছে ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’ বা ভালোবাসা দিবস। আজকের দিনে দেশে দেশে হৃদয় আঁকা কার্ড, চকলেটের বাক্স, লাল গোলাপ, ভালোবাসা বার্তা লেখা টি–শার্ট পরা টেডি বিয়ার পুতুল প্রিয় মানুষকে উপহার দেন লোকজন।

আজকের দিনে এসে ভালোবাসা দিবস শুধুই একটি অনুভূতির উদ্‌যাপন নয়, ভীষণভাবে বাণিজ্যিক উদ্‌যাপনও বটে। জাপানে একে রোমান্টিক পুঁজিবাদ বলে বিক্ষোভও করে আসছে কিছু সংগঠন। তবু প্রিয়জনের প্রতি আজ ভালোবাসা প্রকাশ থেমে থাকবে না মানুষের।

ভালোবাসা দিবসের প্রাচীনতম কবিতাটি লিখেছিলেন এক ফরাসি রাজপুত্র। ১৪১৫ সালে আজাঁকুর যুদ্ধে ইংরেজদের কাছে বন্দী ডিউক অব অলিয়ঁ শার্ল কারাগারে বসে তাঁর স্ত্রীর উদ্দেশে ওই কবিতা লেখেন। অবশ্য ভ্যালেন্টাইনস ডে উদ্‌যাপিত হচ্ছে তারও হাজার বছর আগ থেকে।

৪৯৬ খ্রিষ্টাব্দে পোপ প্রথম গেলাসিয়াস ভালোবাসার কারণে তৃতীয় শতকে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সেন্ট ভ্যালেন্টাইনকে ঈশ্বরের প্রিয় তালিকায় যুক্ত করেন। তখন থেকে তাঁর প্রতি মানুষের শ্রদ্ধা উদ্‌যাপিত হতে থাকে।

ভালোবাসার সঙ্গে সব সময়ই হৃদয়ের সম্পর্ক দেখে আসছে মানুষ। এর কারণ প্রাচীন মিসরীয়দের বিশ্বাস। তারা বিশ্বাস করত, হৃৎপিণ্ড সব স্মৃতির উৎস। সেই সঙ্গে আবেগেরও। এই অঙ্গকে তারা এতই বেশি মূল্য দিত যে মমি করার সময় বাকি সব অঙ্গ ফেলে দিলেও হৃৎপিণ্ড শরীরের ভেতর রেখে দিত।

এ ছাড়া অ্যারিস্টটলও বিশ্বাস করতেন, হৃৎপিণ্ডই বুদ্ধিমত্তার ধারক অঙ্গ। ১৮ শতকে ইংল্যান্ডে ভালোবাসা দিবস বাণিজ্যিক ব্যাপকতা লাভ শুরু করে। ১৯১৩ সালে হলমার্ক যুক্তরাষ্ট্রের কানসাস শহরে ভালোবাসা দিবসে প্রথম গণহারে কার্ডের বিপণন শুরু করে। নারী ভিক্টোরিয়ার শাসনামলে কুসংস্কার রটে, কার্ডে নিজের নাম কার্ডে সই করলে দুর্ভাগ্য ডেকে আনে।

তাই কার্ডে এখনো সবাই ‘তোমার ভ্যালেন্টাইনের কাছ থেকে’ লিখেই ছেড়ে দেন। ভিক্টোরীয় যুগেই ভালোবাসা দিবসে গোলাপ বিনিময় জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এর কারণ, রোমান প্রেমের দেবী ভেনাসের প্রিয় ফুল গোলাপ। এখন প্রতিবছর পাঁচ কোটি গোলাপ বিনিময় হয় এ দিনটিতে।

ব্যতিক্রমী আয়োজন
আজ ভারতের গুজরাটে প্রায় ১০ হাজার ছাত্র একটি শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। তারা ‘বাবা মায়ের অনুমতি ছাড়া বিয়ে করবে না’ বলে শপথ নেবে। পাকিস্তানের পাঞ্জাবের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ ভালোবাসা দিবসের বদলে ‘বোন দিবস’ পালন করা হবে। দুই বৈরী দেশেরই এই আয়োজন পাশ্চাত্য সংস্কৃতির বিরোধিতা করে।

সাম্প্রতিক একটি পরিসংখ্যান বলছে, ভালোবাসা দিবসে গত বছর বিবাহবিচ্ছেদের সংখ্যা বেড়েছে সর্বোচ্চ। আগের ছয় মাসের তুলনায় এই দিনে ৪০ শতাংশ বিবাহবিচ্ছেদ বেশি হয়েছে বলে দেখা গেছে।

আরেকটি পরিসংখ্যান বলছে, গত বছর ডেটিং অ্যাপে প্রতারণার ২০ শতাংশ বেড়েছে। প্রেমের নামে প্রতারক চক্র ২ কোটি ৪৬ লাখ মার্কিন ডলার হাতিয়ে নিয়েছে, যা একটি রেকর্ড। প্রতারণার শিকার বেশির ভাগের গড় বয়স ৫০ বছর। দুই–তৃতীয়াংশ ভুক্তভোগী নারী। পুরুষের থেকে নারীরা দুই গুণ বেশি অর্থ হারিয়েছেন।

এদিকে যুক্তরাজ্যের এক দম্পতি (৯৫) আজ বিশেষ ভ্যালেন্টাইনস ডে উদ্‌যাপন করতে যাচ্ছেন। জেমস ও সিসিলা মার্শ নামের এই দম্পতি ১৯৪৩ সালে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন। এবার তাঁদের ভালোবাসার ৭৫ বছর পূর্তি হচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ