spot_img
20 C
Dhaka

২৯শে জানুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৫ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

বৈশ্বিক সামরিক শক্তি সূচকে ৪০তম বাংলাদেশ

- Advertisement -

ডেস্ক রিপোর্ট, সুখবর ডটকম: সামরিক সক্ষমতার ওপর নির্ভর করে তৈরি করা আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল ফায়ারপাওয়ারের (জিএফপি) চলতি বছরের সামরিক শক্তি সূচকে বিশ্বের ১৪৫টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ৪০তম অবস্থানে রয়েছে। এই সূচকে গত বছরের মতো শীর্ষ সামরিক ক্ষমতাধর দেশ নির্বাচিত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

জিএফপির চলতি বছরের সূচকে দেশগুলোর শক্তি বৃদ্ধির প্রবণতার ওপর ভিত্তি করে জাতীয় সামরিক শক্তিকে তুলে ধরা হয়েছে। জিএফপির পর্যালোচনায় ‘পাওয়ারস অন দ্য রাইজ’ তালিকায় ১২তম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। জিএফপির ২০২৩ সালের বার্ষিক প্রতিরক্ষা পর্যালোচনায় ‘পাওয়ারস অন দ্য রাইজ’ হিসেবে ৫৩টি দেশকে বেছে নেওয়া হয়।

আন্তর্জাতিক এই সংস্থার ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, বিশ্বের ১৪৫টি দেশের সামরিক সক্ষমতার সর্বশেষ সহজলভ্য সামরিক সরঞ্জাম, প্রতিরক্ষা বাজেট, সৈন্য সংখ্যাসহ বিভিন্ন ধরনের ৬০টির বেশি মাপকাঠির ওপর ভিত্তি করে চলতি বছরের সূচক তৈরি করা হয়েছে।

‘২০২৩ মিলিটারি স্ট্রেন্থ  র‍্যাংকিং’ নামে প্রকাশিত এই সূচকে সামরিক শক্তিমত্তা বিচারে দেশগুলোর স্কোরও নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীকে বিশ্বের ৪০তম হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। সামরিক শক্তিসূচকে বাংলাদেশ স্কোর পেয়েছে শূন্য দশমিক ৫৮৭১।

গত ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশের সামরিক সক্ষমতাকে এই সূচকের ভিত্তি হিসেবে ধরে নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জিএফপি।

এদিকে, গত বছরের মতো এই সূচকে শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। রাশিয়া-ইউক্রেন চলমান যুদ্ধের পটভূমিতে ১৪৫টি দেশের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী সামরিক বাহিনীর তালিকায় ১৫তম স্থানে রয়েছে ইউক্রেন।

অন্যদিকে, জিএফপির সূচকে দ্বিতীয় সামরিক ক্ষমতাধর দেশ নির্বাচিত হয়েছে রাশিয়া। দেশটির স্কোর শূন্য দশমিক ০৭১৪। আর সামরিক শীর্ষ ক্ষমতাধর দেশের এই সূচকে চীন রয়েছে তৃতীয় স্থানে। চীনের স্কোর শূন্য দশমিক ০৭২২।

বাংলাদেশের প্রতিবেশি ভারত শীর্ষ সামরিক ক্ষমতাধর দেশের এই তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছে; দেশটির স্কোর শূন্য দশমিক ১০২৫। আর শূন্য দশমিক ১৪৩৫ স্কোর নিয়ে পঞ্চম স্থানে রয়েছে যুক্তরাজ্য।

এছাড়া সূচকের শীর্ষ ১০ দেশের মধ্যে ৬ষ্ঠ দক্ষিণ কোরিয়া (স্কোর ০.১৫০৫), পাকিস্তান ৭ম (স্কোর ০.১৬৯৪), জাপান ৮ম (স্কোর ০.১৭১১), ফ্রান্স ৯ম (স্কোর ০.১৮৪৮) এবং ইতালি দশম (স্কোর ০.১৮৪৮) স্থানে রয়েছে।

আর বাংলাদেশের আরেক প্রতিবেশি মিয়ানমার রয়েছে ৩৮তম স্থানে। দেশটির স্কোর শূন্য দশমিক ৫৭৬৮। জিএফপির এই সূচকে ইরান ১৭তম, ইসরায়েল ১৮তম, ভিয়েতনাম ১৯তম, সৌদি আরব ২২তম, তাইওয়ান ২৩, থাইল্যান্ড ২৪তম ও উত্তর কোরিয়া ৩৪তম সামরিক ক্ষমতাধর দেশের অবস্থানে রয়েছে।

আর এই তালিকার একেবারে তলানিতে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভুটান। ১৪৫তম অবস্থানে থাকা দেশটির স্কোর ৬ দশমিক ২০১৭।

সূত্র : জিএফপি।

আই.কে.জে/

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ