spot_img
26 C
Dhaka

১লা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৮ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

বিশ্ব ইজতেমা: আখেরি মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর ডটকম: আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। লাখো মানুষের অংশগ্রহণে মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয় মোনাজাতে।

আজ রোববার (১৫ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় শুরু হয় মোনাজাত। ২০ মিনিটের মধ্যে মোনাজাত শেষ হয়ে যায়। এটি পরিচালনা করেন কাকরাইল জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মুহম্মদ জুবায়ের।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম জানান, এবছর বেলা ১১টার মধ্যে আখেরি মোনাজাত শেষ করতে ইজতেমা কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়েছিল, তারা সে অনুযায়ী মোনাজাত শেষ করেছেন।

মোনাজাতের শুরুতে আল্লাহতায়ালার দরবারে মানুষের হেদায়েত কামনা করা হয়। দুনিয়ার মানুষের সুখ, শান্তি, উন্নতি, সমৃদ্ধি ও কল্যাণ প্রার্থনা করা হয়।

মাওলানা মুহম্মদ জুবায়েরের সঙ্গে লাখো মুসল্লি দুই হাত তুলে ‘আমিন’, ‘আমিন’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত করে তোলেন পুরো টঙ্গী। ইজতেমার মাঠ ও আশপাশের কয়েক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে লাগানো মাইকে সেই ধ্বনি ছড়িয়ে পড়ে তুরাগ নদের চারপাশের এলাকায়।

টঙ্গীর আকাশে-বাতাসে ধ্বনিত হতে থাকে লাখো কণ্ঠের কান্নার ধ্বনি। নানা বয়সী ও পেশার মানুষ, এমনকি নারীরাও ভিড় ঠেলে মোনাজাতে অংশ নিয়ে আল্লাহর দরবারে মনের আকুতি জানিয়ে কেঁদে বুক ভাসিয়েছেন।

আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে মুসল্লিতে ঠাসা ছিল মাঠ। কোথাও তিল ধারনের মতো জায়গা নেই। যারা ময়দানে অবস্থান করছেন তারা দু’তিন দিন আগেই এসেছেন। আজ ভোর থেকে ঢল নামে আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে আসা মুসল্লিদের। মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মাঠের দিকে মানুষের এ ঢল অব্যাহত ছিল।

মোনাজাত শুরু হওয়ার পর যে যেখানে ছিলেন সেখানেই হাত তুলে দাঁড়িয়ে যান।

এদিকে, মোনাজাত শেষ হতেই সবাই যার যার মতো ইজতেমা মাঠ থেকে বের হয়ে যাচ্ছেন। এখন আবার উল্টো পথে ঢল নামবে মানুষের। এটি বিকেল পর্যন্ত থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এম/ আই. কে. জে/

আরো পড়ুন:

বিশ্ব ইজতেমা: আখেরি মোনাজাত চলছে

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ