spot_img
27 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

৫ই অক্টোবর, ২০২২ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

বিশ্বের ‘উদ্ভট’ যত মন্ত্রণালয়

- Advertisement -

ডেস্ক নিউজ, সুখবর বাংলা: সরকার সৃজনশীল হলে কি সে দেশ “উদ্ভট” সব মন্ত্রণালয় পায়? এই যেমন ধরুন কফি, একাকীত্ব, সুখ অথবা যোগ মন্ত্রণালয়!

বিশ্বের এরকম “উদ্ভট” কিছু মন্ত্রণালয় সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

পাপুয়া নিউগিনির ‘কফি মন্ত্রণালয়

পাপুয়া নিউগিনিতে সবচেয়ে বেশি চাষ হওয়া ফসলের মধ্যে কফি অন্যতম। দেশের কৃষি রপ্তানির প্রায় ২৭% কফি। তাছাড়া দেশটির মোট দেশজ উৎপাদনে ৬% কফি শিল্পের অবদান। সম্ভবত সে কারণেই পাপুয়া নিউগিনির প্রধানমন্ত্রী জেমস মারাপে ২০২২ সালের আগস্টে জো কুলিকে দেশের প্রথম কফিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ করেছিলেন।

মারাপেকে উদ্ধৃত করে স্থানীয় গণমাধ্যম উল্লেখ করেছে, “মন্ত্রীর কাজ কফি, কফি ও কফির দিকে মনোযোগ দেওয়া।”

জাপানের ‘একাকীত্ব মন্ত্রণালয়

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে জাপান সরকার তেতসুশি সাকামোটোকে “একাকীত্ব মন্ত্রণালয়”-এর প্রথম মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়ে অনন্য এক মন্ত্রিসভার দৃষ্টান্ত তৈরি করেন।

জাপানি গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা বলেন, “কোভিড-১৯ এর কারণে জাপানে এক দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো; বিশেষ করে নারীদের মধ্যে ক্রমবর্ধমান আত্মহত্যার হার মোকাবিলা করাই মন্ত্রণালয়টির লক্ষ্য।”

একাকীত্ব মন্ত্রী সাকামোটো তার উদ্বোধনী ভাষণে বলেছিলেন, “আমি সামাজিক একাকীত্ব ও বিচ্ছিন্নতা দূর করতে এবং মানুষের মধ্যে সম্পর্ক রক্ষার জন্য নানা কার্যক্রম পরিচালনা করবো।”

জাপান সম্ভবত যুক্তরাজ্য থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে মন্ত্রণালয়টি শুরু করেছে। যুক্তরাজ্য ২০১৮ সালে সামাজিক বিচ্ছিন্নতার মতো সমস্যাগুলোয় মানুষকে সাহায্য করতে ট্রেসি ক্রাউচকে একাকীত্বের মন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত করে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ‘সুখ মন্ত্রণালয়’

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে সংযুক্ত আরব আমিরাত একটি “সুখ মন্ত্রণালয়” স্থাপন করে এবং ওহুদ আল রৌমিকে তার নাগরিকদের মধ্যে সুখ বাড়ানোর দায়িত্ব অর্পণ করে এর মন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত করে।

একাধিক টুইট বার্তায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম আরও সুখী মানুষ দেখার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

তিনি আরও উল্লেখ করেন, রৌমি পরিকল্পনা, প্রকল্প, প্রোগ্রাম ও সূচক প্রকাশ করার মাধ্যমে জনগণের সাধারণ মেজাজের উন্নতি করবে।

এখানে আরও উল্লেখ করা যেতে পারে যে ২০১৪ সালে জাপান হারুকো আরিমুরাকে দেশের প্রথম বেসরকারি “টয়লেট মন্ত্রী” হিসেবে নিয়োগ দেয়।

ভারতের ‘যোগ মন্ত্রণালয়

একই বছর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঐতিহ্যবাহী ভারতীয় চিকিৎসা ও যোগব্যায়ামকে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য একটি অনন্য মন্ত্রণালয় তৈরি করেন, “যোগ মন্ত্রণালয়”। আর শ্রীপদ নায়েককে যোগমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত করা হয়। এক বছর পরে দেশটি প্রথমবারের মতো যোগ দিবস উদযাপন করে।

আরও পড়ুন:

নদী শুকিয়ে যেতেই বেরিয়ে পড়ল ডাইনোসরের পায়ের ছাপ

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ