spot_img
19 C
Dhaka

৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ২৩শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

বিশ্বব্যাপী স্টক মার্কেটে মুনাফা অর্জনে দ্বিতীয় অবস্থানে ভারত

- Advertisement -

ডেস্ক রিপোর্ট, সুখবর ডটকম: রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, ক্রমাগত মুদ্রাস্ফীতি এবং ক্রমবর্ধমান সুদের হার ও চীনে কোভিডের পুনরুত্থানের মধ্যেও গত এক বছর ধরে বেশ ভালো অবস্থানেই ছিল ভারতীয় স্টক মার্কেটের সূচকগুলো। তবে গত ৩০ ডিসেম্বর, শুক্রবার, সেনসেক্স এবং নিফটির সূচক ০.৪% কম নিয়ে ২০২২ সালের শেষ বাণিজ্যিক দিনের ইতি টানে ভারতীয় স্টক এক্সচেঞ্জ।

২০২২ সালে, স্থানীয় মুদ্রার পরিপ্রেক্ষিতে ভারতে সেনসেক্সের পরিমাণ ৪.৪৪% বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিক দিয়ে ভারত ছিল বিশ্বব্যাপী দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মুনাফা অর্জনকারী রাষ্ট্র। প্রথম অবস্থানে ৪.৬৯% বৃদ্ধি নিয়ে আছে ব্রাজিল। এশিয়াতে, সবচেয়ে ভালো অবস্থানে ছিল সেনসেক্স। এর পরের অবস্থানে রয়েছে জাকার্তা কম্পোজিট সূচক এবং স্ট্রেইট টাইমস, উভয়ের পরিমাণই ৪.০৯% বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিনিয়োগকারীদের সম্পদ বেড়েছে ৬.১৫% বা  ১৬.৩৬ ট্রিলিয়ন রুপি। যাইহোক, ডলারের পরিপ্রেক্ষিতে, এটি ৪.৫৩%, যেহেতু ডলারের পরিপ্রেক্ষিতে সূচক ৫.৯২% কমেছে। ২০২২ সালে ডলারের বিপরীতে রুপির পরিমাণ  ১০.১৮% কমেছে, যা ২০১৩ সালের পর থেকে সর্বোচ্চ।

কোটাক মিউচুয়াল ফান্ডের এমডি নীলেশ শাহ বলেন, ১৯৯১ সাল থেকে ২০২১ সালের মধ্যে ভারতের জিডিপি এবং ব্যবসায়িক মূল্য ১০ গুণ বেড়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে এটি অবশ্যই ভারতের জন্য আশার কথা।

যাইহোক, ২০২২ সালে বিনিয়োগকারীদের সম্পদ বৃদ্ধি পেলেও তা আগের দুই বছরের তুলনায় অনেক কম ছিল। সিওয়াই২১ এবং সিওয়াই২০ সালে, বিনিয়োগকারীদের সম্পদ যথাক্রমে ৭৮ ট্রিলিয়ন এবং ৩২ ট্রিলিয়ন রুপি বৃদ্ধি পেয়েছে।

বাণিজ্যিক পরামর্শদাতা অম্বরীশ বালিগা বলেন, দরবৃদ্ধি ও বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে প্রথমার্ধে ভারতের স্টক এক্সচেঞ্জে মন্থরতা দেখা দিলেও পরবর্তীতে তা দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পায়।

তার মতে, ২০২০ এবং ২০২১ সালে যে স্টকগুলো ভালো করেছিল সেগুলি ২০২২ সালে এসে তেমন ভালো করেনি এবং এর বিপরীতটাও ঘটেছে।

সেনসেক্সে শীর্ষ লাভকারীরা হলেন আইটিসি, মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা, এনটিপিসি, ইন্ডাসইন্ড এবং অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক। তাদের বাজারদর ৩৮%-৬০% এর মধ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে।

সারা বছরে, বিদেশী প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ১.২৩ ট্রিলিয়ন টাকার শেয়ার বিক্রি করেছেন এবং দেশীয় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ২.৭৩ ট্রিলিয়ন টাকার শেয়ার কিনেছেন।

২০২৩ এর প্রথম দিকে বৈশ্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে বলা যায় যে, ভারতীয় স্টক এক্সচেঞ্জ কিছুটা চাপের মধ্য দিয়েই যাবে। তবে পরবর্তীতে এটি তার উন্নয়নের গতি ফিরে পাবে বলেও আশা করা হচ্ছে।

আই. কে. জে/

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ