spot_img
31 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ইং, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

বিদ্যুতের দরকার নেই, লবণ পানিতেই জ্বলবে আলো

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর বাংলা: এক অনন্য আবিষ্কার করলেন ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ওশান টেকনোলজি-র গবেষকেরা। বিদ্যুতের দরকার নেই, এবার থেকে লবণ পানিতেই জ্বলবে এলইডি বাল্ব। বিদ্যুতের খরচ সম্বন্ধে সকলেই জানেন। কিন্তু যদি লবণ পানিতেই জ্বলে এলইডি বাল্ব তাহলে তা দরিদ্র থেকে মধ্যবিত্তের মন ভাল করে দিতে বাধ্য। বিদ্যুতের খরচ কমে যদি সংসারে লবণের খরচ একটু বাড়ে তাতে কেউই আপত্তি করবেননা।

আবার যাঁরা সমুদ্রের ধারে কাছে থাকেন তাঁদের তো কথাই নেই। ওই লবণটুকুর খরচও তাঁদের করতে হবে না। স্রেফ সমুদ্রের পানিই যথেষ্ট।

দরিদ্র মানুষের মুখে এই আবিষ্কার শুধু হাসিই ফোটাবে না, সেইসঙ্গে এখনও দেশের যেখানে যেখানে বিদ্যুৎ পৌঁছতে পারেনি সেখানেও বাল্বের আলো পৌঁছে দেবে।

স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তির ঠিক আগেই দেশের এই অনন্য আবিষ্কারকে তারিফে ভরিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় ভূবিজ্ঞান মন্ত্রকের মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। কিন্তু এই লবণ পানিতে জ্বলা আলোর নাম দেওয়া হয়েছে রোশনি।

মন্ত্রী রোশনির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করে জানান, দেশে তৈরি এই অনন্য আবিষ্কার বিশেষত দরিদ্র মানুষের বিশেষ উপকারে লাগবে। আর কাজে লাগবে দেশের সাড়ে ৭ হাজার কিলোমিটার বিস্তৃত সমুদ্র উপকূল ধরে থাকা মৎস্যজীবীদের।

তাঁরা এখন ঘরে অনায়াসেই বাল্বের আলো জ্বালাতে পারবেন। তাঁদের পরিবার উপকৃত হবে। আর এই বাল্ব জ্বালানোর জন্য তাঁদের সারাক্ষণের সঙ্গী সমুদ্রের পানিই যথেষ্ট।

মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং আরও জানান, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উজালা প্রকল্পের সাফল্যও আরও তরান্বিত হবে এই প্রকল্পের হাত ধরে। এতে সারা দেশে প্রায় সব ঘরেই বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে। সমুদ্রের পানি যেখানে পাওয়া যাবে না, সেখানে সাধারণ পানির সঙ্গে লবণগুলে নিলেই বাল্বের জ্বালানি তৈরি হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন:

হাত মেলাল আধ্যাত্মিক জগত ও উন্নত প্রযুক্তি, চিকিৎসায় বিপ্লব ঘটাল অমৃতা

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ