spot_img
20 C
Dhaka

২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৩ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

বিদায়ী বছরে আলোচিত ৫ চলচ্চিত্র তারকা

- Advertisement -

বিনোদন ডেস্ক, সুখবর ডটকম: ক্যালেন্ডারের পাতা থেকে বিদায় নিচ্ছে ২০২২ তবে নানা কারণে স্মরণীয় হয়ে থাকবে বছরটি। তারকাদের জীবনেও ঘটেছে নানা ঘটনা। কেউ অভিনয় দিয়ে দেশের সীমানা পেরিয়ে বিদেশেও প্রশংসিত হয়েছেনে। এ বছরজুড়ে আলোচনায় ছিলেন বাংলাদেশের ৫ চলচ্চিত্র তারকা।

 চঞ্চল চৌধুরী

বছরের অন্যতম আলোচিত তারকা চঞ্চল চৌধুরী। ২টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে তার। একটি পাপ-পুণ্য, আরেকটি হাওয়া। পাপ-পুণ্য সিনেমায় তার অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছে। অন্যদিকে হাওয়া সিনেমা তাকে দিয়েছে প্রবল খ্যাতি। দর্শকরা এই সিনেমা লুফে নিয়েছেন।

মুক্তির শুরুতে টানা এক সপ্তাহ টিকিট পাওয়া যায়নি। টানা কয়েক মাস সিনেমাটি হাউসফুল চলেছে। চঞ্চলের অভিনয় ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছে সবার কাছে। বিশ্বের কয়েকটি দেশেও সিনেমাটি মুক্তি দেওয়া হয় এবং বেশ সাড়া ফেলে। কলকাতার নন্দনে এই অভিনেতা উপস্থিত থেকে হাওয়া দেখেছেন। সিনেমা ছাড়াও কারাগারসহ কয়েকটি ওয়েব ফিল্ম দিয়েও আলোচনায় ছিলেন তিনি।

জয়া আহসান

জয়া আহসান অভিনীত বিউটি সার্কাস সিনেমা মুক্তি পায় এ বছর। এই সিনেমা দিয়ে জয়া আহসান আলোচিত ও প্রশংসিত হয়েছেন। ঝরাপালক মুক্তি পেয়েছে কলকাতায়। কবি জীবনানন্দ দাশের জীবনী নিয়ে নির্মিত ঝরাপালক প্রশংসা কুড়িয়েছে।

এছাড়া গোয়া ফিল্ম ফেস্টিভালে গেছে নকশী কাঁথা। এ বছর কলকাতায় একাধিক সিনেমা করেছেন জয়া আহসান। কলকাতায় অভিনয়ের জন্য পুরস্কারও পেয়েছেন। বছর শেষে হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করছেন। মূলত বছরজুড়ে ব্যাপকভাবে আলোচনায় ছিলেন ২ বাংলার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। অন্যদিকে ইউএনডিপির শুভেচ্ছা দূত হয়েছেন জয়া আহসান।

বাঁধন

২০২২ সালের আরেক আলোচিত নাম বাঁধন। প্রথমবারের মতো হিন্দি সিনেমায় নাম লিখিয়ে ব্যাপক আলোচিত হয়েছেন। তার হিন্দি সিনেমা খুফিয়া মুক্তি পাবে নতুন বছরে। অন্যদিকে রেহানা মরিয়ম নূর সিনেমা নিয়ে স্পেনের একটি চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নেন।

পুরস্কার ও প্রশংসা দুটোই এনেছেন সেখান থেকে। তার ক্যারিয়ারে যুক্ত হয়েছে অনেক কিছু । নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন এই অভিনয়শিল্পী। এছাড়া কিছুদিন আগে গুটি নামের একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন। চরকির ব্যানারে নির্মিত নতুন ওয়েব সিরিজ আসছে বছরে মুক্তি পাবে।

বিদ্যা সিনহা মিম

ঢালিউডের চলচ্চিত্র নায়িকাদের মধ্যে বছরজুড়ে দারুণ আলোচনায় ছিলেন বিদ্যা সিনহা মিম। এ বছর তিনি ক্যারিয়ারের সেরা সময় পার করেছেন। ‘পরাণ’ সিনেমা দিয়ে দর্শকের মন কেড়েছেন। পরাণ রেকর্ড সংখ্যক ব্যবসা করেছে। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে পরাণ মুক্তি পেয়েছে কয়েকটি দেশে।

সেখানেও সিনেমাটি প্রশংসা অর্জন করেছে। অন্যদিকে দামাল সিনেমাটিও মিমকে দিয়েছে দারুণ খ্যাতি ও প্রশংসা। তাই বছরটি ছিল মিমের। ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত নির্বাচিত হয়েছেন। বছরের শেষে এসে কলকাতায় মানুষ নামের একটি সিনেমার শুটিং শুরু করছেন।

শরিফুল রাজ

ঢাকাই সিনেমায় নতুন নায়কদের মধ্যে এ বছর সবচেয়ে আলোচিত নাম এসেছে শরিফুল রাজের। পরাণ তার ক্যারিয়ারে প্লাস করেছে। তার অভিনয় জীবনের টার্নিং পয়েন্ট পরাণ। সিনেমাপ্রেমিরা একটি মাত্র সিনেমা দিয়ে চিনেছে রাজকে।

ঢাকাই সিনেমায় এক বছরে একটি সিনেমা দিয়ে আগে এতোট আলোচনায় আসেনি কেউ। এখনো পরাণ সিনেমার প্রসঙ্গ এলেই রাজের নাম উচ্চারিত হয়। এছাড়া, হাওয়া ও সবশেষে দামাল দিয়ে রাজ এ বছর হ্যাট্রিক করেছেন।

এসি/ আইকেজে /

আরো পড়ুন:

রাতে কেন তাড়াতাড়ি বিছানায় যেতে চান কিয়ারা আদবানি?

 

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ