spot_img
28.3 C
Dhaka

১লা ডিসেম্বর, ২০২২ইং, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ
***ইসলামি গানের মডেল হলেন মিশা সওদাগর***১৮ লাখ টাকার সোনা-হীরা বিক্রি করতে গিয়ে আটক গৃহপরিচারিকা***নিজেদের ওপর বিশ্বাস রাখো, শিষ্যদের প্রতি জাপান কোচ মোরিইয়াসু***ভারতের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে খেলা হচ্ছে না তাসকিন আহমেদের***নানা সুবিধাসহ যমুনা গ্রুপে চাকরির সুযোগ***১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত ‘বিশেষ অভিযান’ চালাবে পুলিশ***সোহরাওয়ার্দীতে পা‌কিস্তান আত্মসমর্পণ করায় বিএনপি সেখানে সমাবেশ করতে চায় না : হাছান মাহমুদ***বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত***জিতের বাড়ির সামনে এক ভিন্নরকম জন্মদিনের চিত্র***বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলায় এক্সেল কামালের ফাঁসি কার্যকর

এবার ৪ কি.মি. লম্বা কোরিয়ার পতাকা টানালেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মিন্টু

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর বাংলা: বিশ্বকাপের মহাযজ্ঞ মাঠে গড়াতে বাকি আর মাত্র কয়েকদিন। কাতারের মাটিতে ২০ নভেম্বর থেকেই শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। কাতারের মাটির এই বিশ্বকাপের উন্মাদনা এরই মধ্যে ছুঁয়ে গেছে বাংলাদেশের মানুষের মন এদেশের ফুটবল ভক্তরাও মেতে উঠেছেন সেই ফুটবল উন্মাদনায়।

বাংলাদেশের ফুটবল প্রেমীদের অধিকাংশের প্রিয় দল ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার পতাকা উড়ানোর হিড়িক পড়েছে দেশজুড়ে। তার ছোঁয়া লেগেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরেও। ফুটবল নিয়ে এমন একটি আবেগ আর উন্মাদনার ঘটনা ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে।

স্ত্রীর ব্যাংকে জমানো টাকা এবং শখের আম বাগান বিক্রি করে প্রায় চার কিলোমিটার দৈর্ঘ্য দক্ষিণ কোরিয়ার পতাকা তৈরি করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার দক্ষিণ কোরিয়া ফেরত যুবক মিন্টু মিয়া। নিজের বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়ি পর্যন্ত দীর্ঘ এলাকা জুড়ে পতাকা তৈরি করায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

মিন্টুর এই কাজে সহযোগী হয়েছেন তার স্ত্রীও। দেশটির প্রতি তার ভালো বাসার বহিঃপ্রকাশ বলে জানায় মিন্টু। তার এমন কাজে এলাকাবাসীসহ স্বজনেরা উৎসাহিত করছেন। এ অবস্থায় জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জানান অতিরিক্ত আবেগ থেকে কেউ এমনটি করে থাকতে পারেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জীবিকার তাগিতে ১৯৯৮ সালে তিনি দক্ষিণ কোরিয়া পাড়ি জমান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার দরিকান্দি ইউনিয়নের খাল্লা গ্রামের বাসিন্দা আবু কাউছার মিন্টু। পরে ২০০২ সালে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপটি তিনি সেদেশের গ্যালারিতে বসেই দেখেন। এসময় দক্ষিণ কোরিয়া ফুটবল দলের আলোচিত খেলোয়াড় আঞ্জুয়ানের ক্রীড়া নৈপুণ্য দেখে তিনি মুগ্ধ হন। এরপর থেকে দক্ষিণ কোরিয়া ফুটবলের ভক্ত হয়ে যান তিনি। পরে ২০১৩ সালে দেশে ফিরে আসেন।

বর্তমান মিন্টু মিয়া গাজীপুরে ব্যবসা শুরু করেন। তবে প্রবাস থেকে ফিরলেও দক্ষিণ কোরিয়া দলের প্রতি বিন্দু মাত্র ভালোবাসা কমেনি তার।

এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৮ সালের ফুটবল বিশ্বকাপে রাজধানীর বিমান বন্দর ওভার ব্রিজ এলাকায় এক কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দক্ষিণ কোরিয়ার পতাকা টানিয়ে ছিলেন তিনি। কিন্তু পূর্বের সেই পতাকা নিয়ে আত্মতুষ্টি হয়নি। তাই ২০২২ বিশ্ব কাপের আসরের আগেই নিজের বাড়ি থেকে খাল্লা থেকে পাশের ইউনিয়ন তেজখালি পশ্চিমপাড়া পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার পতাকা তৈরির পরিকল্পনা করেন।

দাম্পত্য জীবনের  স্ত্রীও কোরিয়ার ভক্ত হওয়ায় গত বিশ্বকাপের পর থেকে অর্থ সঞ্চয়ের চিন্তা করেন এই দম্পতি। পরে দক্ষিণ কোরিয়ার পতাকা যুক্ত ৮টি মাটির ব্যাংকে টাকা জমানো শুরু করেন সাবিনা কাউছার দম্পতি। এতে সাবিনা জামান এক লাখ ৮০ হাজার টাকা। অন্যদিকে কাউছার তার পৈতৃকভাবে পাওয়া একটি আম বাগান বিক্রি করেন। সেখান থেকে আরও তিন লাখ ২০ হাজার টাকা যুক্ত করে প্রায় ৫ লাখ টাকায় তৈরি করেন দক্ষিণ কোরিয়ার পতাকা।

শুধু তাই নয়, তাদের ব্যবহৃত পানি ও চা-পান করার কাপ প্লেটেও দক্ষিণ কোরিয়ার পতাকার ছবি স্থান পায়। কাউছার দম্পতির এমন কর্মকাণ্ড দেখে তাদের স্বজন সহ এলাকাবাসীও বেশ উচ্ছ্বসিত। তারা  কাউছার দম্পতির স্বপ্নের কোরিয়া দলের সাফল্য কামনা করেন।

রত্না বেগম নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, মিন্টু ভাই কোরিয়া থেকে আসার পর থেকেই সেই দেশের প্রতি তার টান বেড়ে যায়। এরপর থেকে কোরিয়ার জন্য কিছু করার চেষ্টা করছিলেন তিনি। এর অংশ হিসেবে ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের পর থেকে তিনি মাটির ব্যাংকে টাকা জমানো শুরু করেন। এরপর তিনি পৈতৃকভাবে পাওয়া নিজের শখের আম বাগানটি বিক্রি করেন। এবার পুরো এলাকায় প্রায় পৌনে চার কিলোমিটার এলাকাজুড়ে কোরিয়ার পতাকা টানান। আমরাও তাকে উৎসাহ দিচ্ছি। আমরা চাই কোরিয়া এবারের বিশ্বকাপে ভালো একটি ফলাফল করুক।

হাসিবুল আলম নামে এলাকার আরেক যুবক বলেন, তিনি অনেক দিন ধরেই বলছিলেন কোরিয়ার জন্য নজিরবিহীন একটি পতাকা বানাবেন। কারণ তিনি দীর্ঘদিন সেদেশে ছিলেন। সে দেশের প্রতি তার আলাদা টান ও ভালবাসা আছে। এরপর থেকেই পতাকা বানানোর জন্য টাকা জমাতে থাকেন। আজকে সেই পতাকা নিজের বাড়ি খাল্লা থেকে পাশের ইউনিয়ন তেজখালি পশ্চিম পাড়া পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার এলাকায় পতাকা লাগিয়েছেন তিনি। মিন্টু ভাই, কোরিয়ার একজন বিরাট ভক্ত। আমরাও চাই তার মনের আশা যেন পূরণ হয়।

আবু কাউছার মিন্টুর স্ত্রী সাবরিনা কাউছার বলেন, ‘উনি যখন কোরিয়া থেকে দেশে এসেছিলেন তখন দেশটি সম্পর্কে আমাদের অনেক কিছুই বলতেন। এরপর থেকে কোরিয়াকে আমারও ভালো লাগে। সেই ভালো লাগা থেকেই কোরিয়ার এই পতাকা বানানো হয়েছে। পতাকাটি বানানোর জন্য আমি মাটির ব্যাংকে টাকা জমানো শুরু করি। সেখান থেকে এক লাখ ৮০ হাজার টাকা পাওয়া যায়। এই টাকায় যখন কিছু হচ্ছিল না, তখন ওনি (তার স্বামী) তার বাবার কাছ থেকে পাওয়া আম বাগানটি বিক্রি করেছেন। সেখান থেকে পাওয়া টাকা খরচ করে এই পতাকা তৈরি করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, অনেক আগেই একবার আমাকে কোরিয়ায় নেয়ার কথা বলেছিলেন। তবে নানা কারণে সেটি আর সম্ভব হয়নি। আমারও স্বপ্ন আছে সে দেশটিকে নিজ চোখে এক বার দেখে আসার। এছাড়া কয়েকদিন পর ফুটবল বিশ্বকাপ শুরু হবে। সেজন্য কোরিয়ার প্রতি ভালোবাসা থেকেই এই পতাকা লাগানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে পতাকা পাগল দক্ষিণ কোরিয়া ফেরত আবু কাউছার মিন্টু বলেন, আমি ১৯৯৮ সালে প্রথম কোরিয়ার গিয়েছিলাম। ২০০২ সালে সেখানে আমি ফুটবল বিশ্বকাপ দেখেছিলাম। সে সময়ে আঞ্জুয়ান নামে এক ফুটবলার খুব ভালো খেলতেন। সেখান থেকে আমি কোরিয়ার অনেক বড় একজন ভক্ত।

তিনি বলেন, মূলত কোরিয়ার প্রতি ভালোবাসা থেকেই আমি এত বড় পতাকা বানিয়েছি। সে দেশের মানুষগুলো খুবই ভাল। এখন আমার চাওয়া তারা আমার দেশ বাংলাদেশকে আরও ভালো জানুক আরও চিনুক।

তার প্রত্যাশা এবারের বিশ্বকাপে দক্ষিণ কোরিয়া দল অনেক ভালো খেলবে এবং এবারের বিশ্বকাপ দক্ষিণ কোরিয়া দল শিরোপা জিতবে এমন আশা করেন মিন্টু।

তবে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বলেন, বাংলাদেশের মানুষ খুবই আবেগি। সেই আবেগ বিশ্বকাপের আগে বিভিন্ন জায়গাতেই দেখা যায়। অতিরিক্ত আবেগ থেকেই তিনি এমনটা করেছেন বলে মনে হচ্ছে। তবে এ ব্যাপারে ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে কিছু বলার বা করার নেই। তবে ক্রীড়ামোদি দর্শকদের স্বার্থে শহরের বিভিন্ন স্থানে বড় পর্দায় এবারের বিশ্বকাপ প্রদর্শন করার ব্যবস্থা করা হবে।

এম/

আরো পড়ুন: 

উরুগুয়ের হয়ে চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলবেন সুয়ারেজ, কাভানি

- Advertisement -

Related Articles

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ