spot_img
22 C
Dhaka

৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ২৫শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় তিন পুলিশ সদস্য নিহত

- Advertisement -

ডেস্ক রিপোর্ট: পাকিস্তানের নওশেরা জেলার আকোরা খট্টকে শনিবার সন্ত্রাসী হামলায় তিন পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন।

নওশেরা পুলিশের মুখপাত্র, দুররানি জানান, সন্ত্রাসীরা পুলিশ ভ্যানে হামলা চালায়, যার ফলে পুলিশ সদস্যরা নিহত হয়।

তিনি আরো জানান, এ ঘটনার খবর পেয়েই পুলিশের অপর এক দল তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অনুসন্ধানের কাজ শুরু করে।

খাইবার পাখতুনখোয়া পুলিশ অফিসারদের হেড কনস্টেবল মঞ্জুর, কনস্টেবল আমানুল্লাহ এবং কনস্টেবল আয়াজ এ ঘটনায় নিহত হন।

মেডিকেল টিম লাশগুলোকে নওশেরা জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে নিয়ে গিয়েছে।

খাইবার পাখতুনখোয়ার মুখ্যমন্ত্রী মাহমুদ খান এ ঘটনার জন্য নোটিশ নিয়েছেন এবং পুলিশ প্রধানের কাছ থেকে ঘটনার রিপোর্ট তলব করেছেন।

মুখ্যমন্ত্রী নিহতদের জন্য শোক প্রকাশ ও তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন, “ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। শহীদদের আত্মত্যাগ বৃথা হতে দেওয়া যাবে না।”

গত বুধবার, বেলুচিস্তানের বালেলি এলাকায় একটি পুলিশ ট্রাককে লক্ষ্য করে আত্মঘাতী হামলা ঘটে, যাতে ৪জন পুলিশ সদস্য নিহত এবং ২৪ জন আহত হন।

কোয়েটার ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল অফ পুলিশ (ডিআইজিপি), গুলাম আজফার মহেসার হামলা সম্পর্কে সাংবাদিকদের জানান যে পুলিশ ট্রাকের কাছেই হামলার ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ ট্রাকটি পোলিও কর্মীদের নিরাপত্তা দিতে যাচ্ছিল। বিস্ফোরণের ফলে গাড়িটি ছিটকে খাদে পড়ে যায়।

এ ঘটনায় তিনটি যানবাহন ক্ষতিগ্রস্ত হয়, যার মধ্যে একটি পুলিশ ট্রাক, অপর দুইটি সুজুকি মেহরান এবং টয়োটা করোলা।

আহতদের কোয়েটা সিভিল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

হামলার পরপরই নিষিদ্ধ ঘোষিত তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি) হামলার দায় স্বীকার করে।

সরকারের সাথে যুদ্ধবিরতির অবসান ও সন্ত্রাসীদের সারাদেশে হামলা চালানোর নির্দেশ দেওয়ার একদিন পরেই এই ঘটনাটি ঘটে।

জুন মাসে সরকারের সাথে ঘোষিত যুদ্ধবিরতির অবসান করেছে তারা। কারণ হিসেবে অবশ্য বলেছে, যেহেতু সরকার মুজাহিদিনদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে তাই তারাও সারাদেশে তাদের সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়ে যাবে।

টিটিপি আফগানিস্তানের তালেবানদের থেকে ভিন্ন একটি সত্ত্বা হলেও দুই গোষ্ঠীরই ইসলামি মতাদর্শ এক। ২০০৭ সালে আবির্ভূত হওয়ার পর সারাদেশে শত শত হামলা ও হাজার হাজার মানুষের মৃত্যুর জন্য দায়ী এ সংগঠন।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ