spot_img
32 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

৫ই অক্টোবর, ২০২২ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

পদ্মা সেতুতে ৩০ দিনে টোল আদায় ৭৬ কোটি টাকা

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর বাংলা: পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মাস পেরিয়েছে। অবশ্য সেতু দিয়ে স্বাভাবিক যান চলাচল শুরু হয় উদ্বোধনের পরদিন গত ২৬ জুন থেকে। উদ্বোধনের দিন থেকে প্রথম এক মাসে ৭৪ কোটি ২৬ লাখ ৬৩ হাজার ১৫০ টাকা টোল আদায় হয়েছে। এই সময়ে ৬ লাখ ৪ হাজার ৯৩৮টি গাড়ি পারাপার হয়েছে এই সেতু দিয়ে। এখন পর্যন্ত যে টোল আদায় হচ্ছে, সেটি প্রত্যাশা মাফিক বলে দাবি করছে সেতু কর্তৃপক্ষ। সামনের দিনে পদ্মা সেতু থেকে টোল আদায়ের পরিমাণ আরও বাড়বে বলেও প্রত্যাশা কর্তৃপক্ষের।

পদ্মা সেতু নির্মাণের আগে যানবাহন চলাচল ও আয়ের যে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল, প্রথম মাসের চিত্র এর কাছাকাছি। ২০০৫ সালে পদ্মা সেতু প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাই প্রতিবেদনে যানবাহন চলাচল ও সেতু থেকে আয়ের একটা পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল।

পরে ২০১০ সালে নকশা প্রণয়নের দায়িত্বে থাকা পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ৩৫ বছরে যানবাহনের সংখ্যা ও আয়ের একটা ছক তৈরি করে। এর ওপর ভিত্তি করে ২০১৯ সালের আগস্টে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ঋণ চুক্তি করে সেতু কর্তৃপক্ষ। এতে আয়, ব্যয় ও মুনাফার বিস্তারিত উল্লেখ করা হয়েছে।

বর্তমানে দেশের বৃহত্তম সেতু পদ্মা সেতু, এটা ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ। দ্বিতীয় বৃহত্তম বঙ্গবন্ধু সেতু, দৈর্ঘ্য ৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার। সেতু দুটি বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের অধীন।

দেশের উত্তরবঙ্গের সঙ্গে রাজধানীর সরাসরি যোগাযোগের লক্ষ্যে যমুনা নদীর ওপর নির্মিত বঙ্গবন্ধু সেতু চালু হয় ১৯৯৮ সালে। প্রথম বছর সেতুটি থেকে আসে ৬২ কোটি টাকা। অর্থাৎ বঙ্গবন্ধু সেতু চালুর পর প্রথম এক বছরে যে আয় হয়েছিল, পদ্মা সেতুতে প্রথম মাসেই এর চেয়ে বেশি আয় হয়েছে। অবশ্য বঙ্গবন্ধু সেতুর চেয়ে পদ্মা সেতুতে টোলের হার প্রায় দ্বিগুণ।

পদ্মা সেতুর প্রথম এক মাসের বিশ্লেষণ থেকে দেখা গেছে, এ সেতু দিয়ে দৈনিক গড়ে ২১ হাজারের বেশি যানবাহন চলাচল করেছে। বঙ্গবন্ধু সেতুতে প্রায় একই হারে যানবাহন চলাচল করে। অবশ্য পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ রয়েছে। বঙ্গবন্ধু সেতুতে মোটরসাইকেল চলতে পারে।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (মনিটরিং) মো. আবুল হোসেন বলেন, বছরে আমাদের ৫০০ কোটি টাকার বেশি টোল আদায়ের কথা রয়েছে। এখন পর্যন্ত প্রত্যাশার চেয়ে বেশি টোল আদায় হচ্ছে। সামনের দিকে টোল আদায় আরও বাড়বে। কারণ এখনো অনেক বাস রুট পারমিট পায়নি। আবার কালনা সেতু পুরোপুরি চালু হলে পদ্মা সেতু দিয়ে যানবাহন চলাচল আরও বাড়বে। তখন টোলের পরিমাণও বাড়বে।

আবুল হোসেন আরও বলেন, উদ্বোধনের দিন থেকে ২৪ জুলাই (রোববার) পর্যন্ত টোল আদায়ের তথ্য আমাদের হাতে রয়েছে।

আরো পড়ুন:

নভেম্বর পর্যন্ত নেয়া যাবে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের টিকা

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ