spot_img
24 C
Dhaka

১লা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৮ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ
***মায়ানমারের প্রতি কূটনৈতিক ও সামরিক সহযোগিতা বাড়িয়েছে চীন***ঐশ্বরিয়া, বিক্রম অভিনীত ‘পোন্নিয়িন সেলভান ২’ আসছে***ইসরায়েলের গুরুত্বপূর্ণ হাইফা বন্দর কিনে নিল আদানি গ্রুপ***নারীদের উপর বৈষম্য পাকিস্তানকে সাব-সাহারা দলভুক্ত করেছে***গোপালগঞ্জে ৫০ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী পেলো স্কুল পোশাক***অনলাইন অধ্যয়নের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে নিয়েছে চীন***নতুন বাজেট উন্নত ভারতের শক্তিশালী ভিত্তি তৈরি করবে : নরেন্দ্র মোদী***পেশোয়ারে মসজিদে বিস্ফোরণ: গোয়েন্দা প্রধানের অপসারণ দাবি পাকিস্তানিদের***২৬ জনকে চাকরি দেবে ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান***ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে আনোয়ার গ্রুপ

নির্বাচনে জনগণ বিএনপিকে লাল কার্ড দেখাবে: কাদের

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর ডটকম: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি সুস্থ রাজনীতি করে না, নষ্ট রাজনীতি করে। ফলে নির্বাচনে জনগণ বিএনপিকে লাল কার্ড দেখাবে।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর শ্যামলী স্কয়ারের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি রাষ্ট্রকে ধ্বংস করেছে ও গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে হত্যা করেছে, অর্থ পাচার করেছে। আর এই ষড়যন্ত্রকারীরাই কিনা রাষ্ট্র মেরামত করতে চায়?

সারা ঢাকা আজ মিছিলের মহানগরী উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ আজ প্রস্তুত আছে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে, ভোট চোরদের বিরুদ্ধে, বোমাবাজদের বিরুদ্ধে আজ প্রস্তুত আছে আওয়ামী লীগ। ওদের রুখতে হবে, জঙ্গিবাদ রুখতে হবে। স্বাধীনতা বিরোধীদের রুখতে হবে।

এ সময় বিএনপির উদ্দেশে তিনি বলেন, মেগা প্রকল্প একটিও করতে পারেননি আপনারা। দুর্নীতি ছাড়া আপনাদের কী আছে? থাকলে জনগণকে দেখান। মিথ্যাচারের জন্য জনগণ আর বিএনপিকে ভোট দেবে না বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সময় বিবৃতি না দেওয়ায় বুদ্ধিজীবীদের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আজ বিএনপি বুদ্ধিজীবীদের মাধ্যমে ফখরুলের মুক্তি চায়, ভালো। ফখরুল তাদের বন্ধু। তাদের শুভাকাঙ্ক্ষী। তিনি অসুস্থ আমরা জানি না। বুদ্ধিজীবীরা বিবৃতি দিয়ে বলছেন তিনি নাকি অসুস্থ। এ বাংলাদেশের যখন ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে হত্যা করা হয়েছিল, তখন কী আপনারা বিবৃতি দিয়েছিলেন? বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সময় আপনাদের মুখের ভাষা কোথায় ছিল? আমি জানতে চাই কোথায় ছিল প্রতিবাদ, জাতীয় চার নেতাকে জেলখানায় হত্যা করা হলো, কোথায় ছিল আপনাদের প্রতিবাদ। আহসানউল্লাহ মাস্টারকে যখন প্রকাশ্যে হত্যা করা তখন কী প্রতিবাদ করেছিলেন?

সমাবেশে আরও বক্তব্য প্রদান করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল (অব) মুহাম্মদ ফারুক খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক এসএম মান্নান কচি প্রমুখ।

এম/

আরো পড়ুন:

থার্টি ফার্স্ট নাইট: যা থাকছে ডিএমপির নির্দেশনায়

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ