spot_img
21 C
Dhaka

৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৬ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

নায়করাজ রাজ্জাকের জন্মদিনে দোয়া করলেন শাকিব

- Advertisement -

বিনোদন প্রতিবেদক, সুখবর ডটকম: নায়ক থেকে জ্যেষ্ঠ চরিত্রে, অভিভাবকের স্নেহ থেকে নেতৃত্বের নির্দেশনা, সবেতেই নন্দিত রাজ্জাক। এজন্যই তাকে বলা হয় নায়করাজ। নায়ক তো অনেকেই, কিন্তু তার মতো সাফল্য, সার্বজনীন জনপ্রিয়তা, গ্রহণযোগ্যতা কেইবা অর্জন করতে পেরেছেন ঢালিউডে। আজ সোমবার (২৩ জানুয়ারি) সেই কিংবদন্তির জন্মদিন।

বেঁচে থাকলে আজ ৮২তম জন্মদিন পালন করতেন তিনি। ১৯৪২ সালের ২৩ জানুয়ারি কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন নায়করাজ রাজ্জাক। কিন্তু সময়ের পরিক্রমায় তিনি হয়ে ওঠেন এই বাংলার সিনেমাপ্রেমীদের আপনজন। তাই তিনি সবার ভালোবাসার ‘নায়করাজ’ খেতাব পান।

নায়করাজ রাজ্জাকের জন্মদিন উপলক্ষে রোববার (২২ জানুয়ারি) দিনগত রাত থেকে শোবিজ অঙ্গন থেকে সাধারণ মানুষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান। তার পাশাপাশি নায়করাজ রাজ্জাকের সঙ্গে কাটানো স্মৃতি কথা লিখেছেন তারকারা।

তার ৮২তম জন্মদিন উপলক্ষে সোমবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ নায়ক শাকিব খান নায়করাজের একটা ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘পরপারেও যেন আল্লাহ আপনাকে দুনিয়ার মতো শান্তি ও মর্যাদার আসনে রাখেন, সব সময় এই দোয়া করি। নায়করাজ।’

চলচ্চিত্রে নায়ক হওয়ার অদম্য স্বপ্ন ও ইচ্ছা নিয়ে রাজ্জাক ১৯৫৯ সালে ভারতের মুম্বাইয়ে সিনেমার ওপর ডিপ্লোমা করেন। এরপর কলকাতায় ফিরে এসে ‘শিলালিপি’ ও আরও একটি সিনেমায় অভিনয় করেন। তবে ১৯৬৪ সালে কলকাতায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার কবলে পড়লে পরিবার-পরিজনসহ ঢাকায় চলে আসেন। ঢাকায় এসে রাজ্জাক ‘উজালা’ সিনেমায় পরিচালক কামাল আহমেদের সহকারী হিসেবে কাজ শুরু করেন।

ষাটের দশকে সালাউদ্দিন পরিচালিত হাসির সিনেমা ‘তেরো নম্বর ফেকু ওস্তাগার লেন’-এ একটি পার্শ্বচরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে রাজ্জাক ঢাকায় তার অভিনয় জীবনের সূচনা করেন। যদিও এর আগেই চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছিল এ অভিনেতার। এরপর নায়ক হিসেবে চলচ্চিত্রে নায়করাজের যাত্রা শুরু হয় জহির রায়হানের ‘বেহুলা’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে। ‘বেহুলা’ সিনেমায় সুচন্দার বিপরীতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করে ব্যাপক আলোড়ন তৈরি করেন রাজ্জাক।

১৯৯০ সাল পর্যন্ত বেশ দাপটের সঙ্গেই ঢালিউডে সেরা নায়ক হয়ে অভিনয় করেন রাজ্জাক। অনবদ্য অভিনয়ের কারণেই তিনি অর্জন করেন নায়করাজ খেতাব। অর্জন করেন একাধিক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সম্মাননা। এ ছাড়া রাজ্জাক জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিলের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করেন।

রাজ্জাক অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে রয়েছে- নীল আকাশের নিচে, ময়নামতী, মধু মিলন, পিচ ঢালা পথ, যে আগুনে পুড়ি, জীবন থেকে নেয়া, কী যে করি, অবুঝ মন, রংবাজ, বেঈমান, আলোর মিছিল, অশিক্ষিত, অনন্ত প্রেম, বাদী থেকে বেগম, ছুটির ঘণ্টা ইত্যাদি। প্রায় ৩০০ সিনেমায় নায়ক হিসেবে অভিনয় করেছেন রাজ্জাক। ২০১৭ সালের ২১ আগস্ট নায়করাজ রাজ্জাক চলে যান না ফেরার দেশে।

এসি/আই. কে. জে/

আরো পড়ুন:

পুলিশ হয়ে আসছেন পূর্ণিমা

 

 

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ