spot_img
30 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দুই হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ধাপে ধাপে এমপিওভুক্ত হবে

- Advertisement -

সুখবর রিপোর্ট : যোগ্য দুই হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে ধাপে ধাপে এমপিওভুক্ত করা হবে বলে সংসদে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি । রোববার জাতীয় সংসদে এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেছেন, অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। টাকা পাওয়া সাপেক্ষে অতি দ্রুত এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হবে।

সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, অনলাইনে ৯ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির আবেদন করেছে।

এর মধ্যে ২ হাজার প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্তির জন্য যোগ্য হিসেবে বাছাই করা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানকে খুব দ্রুত এমপিওভুক্ত করা হবে।

চট্টগ্রাম-৩ আসনের মাহফুজুর রহমানের প্রশ্নের জবাবে দীপু মনি বলেন, স্বীকৃতি পাওয়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে প্রত্যাশী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে অনলাইনে আবেদন গ্রহণ করা হয়েছে।

আবেদনপত্র যাচাই-বাছাই কার্যক্রম চলমান রয়েছে। যাচাই-বাছাই শেষে উপযুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে পর্যায়ক্রমে এমপিওভুক্ত করা হবে।

মোতাহার হোসেনের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক এলাকার জনসংখ্যা ও আয়তন বিবেচনা করে এলাকায় কতগুলো প্রতিষ্ঠান হওয়া দরকার, তার হিসাব আছে। অনেক জায়গায় কম আছে, অনেক জায়গায় বেশি আছে।

যখন এমপিওভুক্তির প্রশ্ন আসবে, তখন অনেক ফ্যাক্টর দেখতে হবে। ন্যায্যতার প্রশ্নও জড়িত আছে। এমপিও নির্বাচনী এলাকাভিত্তিক করে যাতে ন্যায্যতাভিত্তিক করতে পারি সে চেষ্টা থাকবে।

অসীম কুমার উকিলের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, সারা দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জরিপের মাধ্যমে পরিত্যক্ত ভবন চিহ্নিত করে নতুন ভবন নির্মাণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

২০২২ সালে প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ড

সরকারি দলের সাংসদ নুরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, ২০২২ সালের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ড গঠনের কার্যক্রম সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে।

আয়েন উদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, সমগ্র বাংলাদেশে পরিকল্পিত সুষ্ঠু আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

এ লক্ষ্যে জাতীয় গৃহায়ণ নীতিমালা ২০১৭ প্রণয়ন করা হয়েছে এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আইনটি প্রণীত হলে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে পরিকল্পিত আবাসনের ব্যবস্থা গ্রহণের উপযুক্ত ভূমি চিহ্নিত করার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

মাহফুজুর রহমানের প্রশ্নের জবাবে গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, সবার জন্য আবাসন নিশ্চিত করতে সরকার নিরলসভাবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ