spot_img
19 C
Dhaka

৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ২৩শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

ঢাকায় মশক নিধন ও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে নতুন পরিকল্পনা

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর ডটকম: মশক নিধনে ও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামির অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। সেখানে গিয়ে মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম জানালেন, এত দিন ফগিংয়ে গুরুত্ব দিলেও এবার জরিপ আর লার্ভিসাইডিংয়ে বেশি মনোযোগী হওয়ার কথা ভাবছেন তারা। বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, মশক নিধনে নতুন পরিকল্পনা নিতে হবে ঢাকাকে।

মিয়ামি দ্য ‘সিটি অব ম্যাজিক’। নীল জলরাশি আর এখানকার আবহাওয়া দেশি- বিদেশি পর্যটকদের কাছে স্বপ্নের গন্তব্য এই শহর।

তবে বছরজুড়েই ১৫ থেকে ৩৫ ডিগ্রি তাপমাত্রা আর বৃষ্টিপাতই যেন কাল হয়েছে এই নগরের। বিশেষ করে অর্ধশতাধিক প্রজাতির মশা ডেঙ্গু, চিকুনগুমিয়া ও জিকাসহ নানা রোগের বিস্তার ঘটিয়েছে এই শহরে। যদিও তা মোকাবিলাতে কম চমক দেখায়নি এর নগর কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র সরকারের আমন্ত্রণে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের এক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেয়েছে মশক নিয়ন্ত্রণের পর্বে।

মশাবাহিত রোগকে অনেকটা বুড়ো আঙুল দেখানো এই সাফল্যের পেছনে বড় অবদান ছোট্ট একটি ল্যাবের। এখান থেকেই নির্ণয় হয় এই নগরের মশার জীবনচক্র। সেই অনুসারে নেয়া হয় নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা।

এখানকার কর্তৃপক্ষ বলছে, সার্ভেলেন্সি বা জরিপই তাদের সাফল্যের মূল মন্ত্র। সেক্ষেত্রে ঢাকাকেও মশার অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেয়ার তাগিদ তাদের।

ফ্লোরিডা ডেড কাউন্টির মশক নিয়ন্ত্রণ বিভাগের অপারেশন ম্যানেজার ইশিক উনলু বলেন, সমাধান পেতে হলে সমস্যাটা আগে ভালোভাবে জানতে হবে। মশক নিয়ন্ত্রণে আমরা সেই কাজটিতেই সবচেয়ে বেশি জোর দিই। এ কারণে মাত্র কয়েক বছরেই আমরা সফল হতে পেরেছি।

আর ফ্লোরিডা ডেড কাউন্টির মশক নিয়ন্ত্রণ বিভাগের পরিচালক ড. ইউলিয়াম ডি পেট্রি বলেন, আবহাওয়া এক হলেও মশক নিয়ন্ত্রণে মিয়ামি ও ঢাকার চ্যালেঞ্জ হয়তো এক না। তবে আমরা আমরা যে বিষয়গুলোকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিই, সেটি হলো সঠিক জরিপ এবং লার্ভিসাইডিংয়ে।

মিয়ামির এই নিয়ন্ত্রণ প্রক্রিয়া দেখে আবার যেন নতুন করে ভাবতে শুরু করেছেন উত্তরের মেয়র। জানালেন, এবার আর ফগিংয়ে পেছনে না ছুটে গুরুত্ব দেবেন লার্ভিসাইডিংয়ে। পাশাপাশি গঠন করা হবে জরিপের নতুন ইউনিট।

আতিকুল ইসলাম বলেন, মশক নিয়ন্ত্রণে আমরা পুরনো পদ্ধতিতে কাজ করছি। মিয়ামির এই নিয়ন্ত্রণ প্রক্রিয়া দেখে আমাদের চোখ অনেক অংশে খুলে গেছে। এখন আমাদেরকে আধুনিক পদ্ধতি প্রয়োগ করতে হবে। মশা থেকে বাঁচতে এজন্য সব সংস্থাকে নিয়ে কেন্দ্রীয়ভাবে বসে আলোচনার মাধ্যমে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

শিগগিরই ডিএনসিসির মশক নিয়ন্ত্রণের পুরো টিমের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে মসকিউটো কন্ট্রোল অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের আয়োজন করা হবে বলেও জানান উত্তরের মেয়র।

এম/

আরো পড়ুন:

ভিসা জালিয়াতি, মার্কিন দূতাবাসের বিবৃতি

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ