spot_img
24 C
Dhaka

১লা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ১৮ই মাঘ, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ
***অনলাইন অধ্যয়নের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে নিয়েছে চীন***নতুন বাজেট উন্নত ভারতের শক্তিশালী ভিত্তি তৈরি করবে : নরেন্দ্র মোদী***পেশোয়ারে মসজিদে বিস্ফোরণ: গোয়েন্দা প্রধানের অপসারণ দাবি পাকিস্তানিদের***২৬ জনকে চাকরি দেবে ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান***ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে আনোয়ার গ্রুপ***ভালো মানুষ আর টাকাওয়ালা পাত্র খুজছেন রাইমা সেন!***বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার দিলেন প্রধানমন্ত্রী***সিডনি প্রবাসী শিল্পী ইলোরা খানের প্রথম মৌলিক গান ‘মুছে ফেলে দাও’ (ভিডিও)***বইমেলায় সাতটি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন প্রধানমন্ত্রীর***বাংলা সাহিত্যের সব বই অনুবাদের চেষ্টা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

জুনেই শেষ হচ্ছে দোহাজারি-কক্সবাজার রেল প্রকল্পের কাজ

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর ডটকম: মেয়াদের এক বছর আগেই প্রকল্পের কাজ শেষ করার চমক। আগামী জুনেই শেষ হচ্ছে দোহাজারি-কক্সবাজার রেললাইনের কাজ। রেলমন্ত্রী ও প্রকল্প পরিচালক বলছেন, আগামী জুলাই নাগাদ চলাচলের উপযোগী হবে এ রেলপথ। আর ট্রেন চালু হলে পর্যটন শিল্পের পাশাপাশি আর্থ সামাজিক উন্নয়নে পাল্টে যাবে এ জনপদের জীবনযাত্রা।

কক্সবাজার সমুদ্রসৈকত থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে নির্মিত হচ্ছে দেশের একমাত্র আইকনিক রেল স্টেশন। ঝিনুকের আদলে ২৯ একর জমির ওপর নির্মিত হচ্ছে এ রেল স্টেশন।

আইকনিক রেল স্টেশনের মতই দ্রুত এগিয়ে চলছে দোহাজারি-কক্সবাজার রেললাইনের কাজ। এরমধ্যে শেষ হয়েছে ৮০ শতাংশ কাজ। প্রকল্পটির সময়সীমা ২০২৪ সালের জুন পর্যন্ত হলেও প্রকল্প পরিচালকের দাবি, আগামী বছরের জুনের মধ্যে শেষ হবে এই রেলপথের কাজ।

দোহাজারি-কক্সবাজার রেল প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ মুফিজুর রহমান জানান, এ প্রকল্পের কাজ দুটি লটে হচ্ছে, প্রথম লটের সব কাজই শেষ। বাকি কাজগুলো আশাকরছি জুন মাসে শেষ করতে পারব।

নির্মাণাধীন আইকনিক স্টেশন ও রেল লাইন ঘুরে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন জানান, আধুনিক কোচগুলো যুক্ত হবে এই রেলপথে। আমাদের বর্তমানে যে কোচগুলো আছে সেগুলোর জানালা ছোট, এখানে বড় জানালার আধুনিক সুবিধাসমৃদ্ধ কোচ যুক্ত করা হবে। যাতে রেলে বসে পুরো প্রকৃতি উপভোগ করতে পারে।

স্থানীয়দের আশা, রেলপথটি চালু হলে পর্যটন শিল্পের পাশাপাশি মৎস্য ও কৃষিজ পণ্য পরিবহনে আমূল পরিবর্তন হবে।

স্থানীয়রা বলছে, ব্রিটিশ সরকারের আমলে এটি সমীক্ষা করা হয়েছিলো। এরপর ব্রিটিশ গেল, পাকিস্তান গেল, বাংলাদেশের জেনারেলদের শাসন গেল আর কেউ এ রেল লাইন নিয়ে ভাবেনি। এখন এ রেলপথ প্রায় শেষের দিকে। এটি শেষ হলে যোগাযোগ ব্যবস্থার যেমন উন্নয়ন হবে তেমনি পর্যটন কেন্দ্রিক বাণিজ্যেও উন্নয়ন হবে।

১৮ হাজার ৩৪ কোটি টাকা ব্যয়ে, দোহাজারি থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণের কাজ শুরু হয় ২০১৮ সালে।

এম/ আই. কে. জে/

আরো পড়ুন:

অনলাইন প্ল্যাটফরমে জুয়ার বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধে রুল

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ