spot_img
22 C
Dhaka

২রা ডিসেম্বর, ২০২২ইং, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

জীবন মানে আমি বুঝি কর্ম : আসাদুজ্জামান নূর

- Advertisement -

বিনোদন ডেস্ক, সুখবর বাংলা: দেশের কিংবদন্তি অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর। তার অভিনয়গুণ এ দেশের টেলিভিশন নাটককে সমৃদ্ধ করেছে। মঞ্চেও তার একচ্ছত্র অবদান।

‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকের বাকের ভাই, অয়োময়ের মির্জা, নান্দাইলের ইউনুস চরিত্রগুলোকে জীবন্ত করে তুলেছিলেন তিনি।

নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের সাড়া জাগানো অনেক নাটকে তার অনবদ্য অভিনয় মঞ্চপ্রেমীরা মনে রাখবেন দীর্ঘকাল।

স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত বরেণ্য শিল্পী বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান নূর একইসঙ্গে একজন রাজনীতিবিদ এবং সংসদ সদস্য।

আজ ৩১ অক্টোবর তার জন্মদিন। ৭৫ বছর শেষ করে ৭৬ বছরে পা দিলেন তিনি। ১৯৪৬ সালের এই দিনে ব্রিটিশ ভারতের জলপাইগুড়িতে জন্মগ্রহণ করেন।

বাংলা নাটকের সব সময়ের সেরা অভিনেতাদের একজন তিনি। ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকে তার করা ‘বাকের ভাই’ চরিত্রটি দেশীয় নাটকের ইতিহাসে অন্যতম এক মাইলফলক। সিনেমায় অভিনয় করেও ছড়িয়েছেন দ্যুতি।

আবৃত্তি শিল্পী হিসেবেও তিনি নন্দিত। একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ এবং রাজনৈতিক ভূমিকা সব মিলিয়ে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য এক উচ্চতায়। তিনি আমাদের আসাদুজ্জামান নূর।

এক সাক্ষাৎকারে জীবনকে কীভাবে দেখছেন? এমন এক প্রশ্নের জবাবে আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘জীবন মানে আমি বুঝি কর্ম। একেক মানুষ একেকরকম কাজের সঙ্গে জড়িত থাকেন। কেউ কবিতা লেখেন, কেউ কারখানায় কাজ করেন, কেউ জমি চাষ করেন, কেউবা ছবি আঁকেন। আমি অভিনেতা হয়েছি। অভিনয় করেছি। দিন শেষে জীবন খুবই আনন্দময়।’

আসাদুজ্জামান নূর বেড়ে উঠেছেন বাংলাদেশের নীলফামারীতে। ছাত্রাবস্থায় তিনি রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। সশরীরে অংশ নিয়েছেন মহান মুক্তিযুদ্ধেও। এছাড়া স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনেও সক্রিয় ছিলেন।

রাজনীতির পাশাপাশি থিয়েটার ও আবৃত্তি চর্চায় যুক্ত হন আসাদুজ্জামান নূর। এরপর নাম লেখান টিভি নাটক ও সিনেমায়। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটকগুলো হলো- ‘এইসব দিনরাত্রি’, ‘অয়োময়’, ‘বহুব্রীহি’, ‘কোথাও কেউ নেই’, ‘আজ রবিবার’, ‘সবুজ ছায়া’, ‘নক্ষত্রের রাত’ ইত্যাদি।

এছাড়া তিনি বেশ কিছু নন্দিত সিনেমায় অভিনয় করেছেন। যেমন; ‘দহন’, ‘শঙ্খনীল কারাগার’, ‘আগুনের পরশমণি’, ‘চন্দ্রকথা’, ‘দারুচিনি দ্বীপ’, ‘নয় নম্বর বিপদ সংকেত’, ‘ঘেটুপুত্র কমলা’।

বর্তমানে তিনি নীলফামারী-২ আসনের সংসদ সদস্য। এছাড়া সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

২০১৮ সালে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘স্বাধীনতা পুরস্কার’ পেয়েছেন আসাদুজ্জামান নূর।

এসি/

আরো পড়ুন:

অবশেষে ‘পুষ্পা–২’-এর শুটিং শুরু করলেন আল্লু অর্জুন

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ