spot_img
25 C
Dhaka

২৭শে নভেম্বর, ২০২২ইং, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

সর্বশেষ

জাতীয় রবীন্দ্রসংগীত উৎসব শুরু কাল

- Advertisement -

সংস্কৃতি প্রতিবেদক, সুখবর বাংলা:এই জীবনে ব্যথা যত এই খানে সব হবে গত‘- কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের এমন অমিয় বাণী মনে ধারণ করে মঞ্চে ফিরছে ঐতিহ্যবাহী জাতীয় রবীন্দ্রসংগীত উৎসব। বাংলাদেশ রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থার আয়োজনে কাল শুক্রবার ও পরশু শনিবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এ উৎসব হবে। করোনা মহামারির কারণে তিন বছর পর আবার সরাসরি মঞ্চে ফিরছে এ উৎসব।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থার সাধারণ সম্পাদক কণ্ঠশিল্পী পীযূষ বড়ূয়া। এ সময় সংস্থার সভাপতি তপন মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী সভাপতি আমিনা আহমেদ, সহসভাপতি খন্দকার খায়রুজ্জামান কাইয়ুম, বুলা মাহমুদ, কাজল মুখার্জি, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক (সাধারণ) তানজিমা তমা, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক (পরিকল্পনা) সাগরিকা জামালী, অর্থ সম্পাদক কনক খান, দপ্তর সম্পাদক সীমা সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক রিফাত জামাল মিতু, নির্বাহী সম্পাদক শর্মিলা চক্রবর্তী, আহমেদ শাকিল হাসমী, সাজ্জাদ হোসেন, জাফর আহমেদ ও রাবিতা সাবাহ।

সংবাদ সম্মেলনে পীযূষ বড়ূয়া বলেন, শেষবার সরাসরি মঞ্চে এ উৎসব করেছেন ২০১৯ সালে। এবারের উৎসবটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

তপন মাহমুদ বলেন, ১৯৮৮ সাল থেকেই এ সংস্থার মূল উদ্দেশ্য নবীন শিল্পীদের উৎসাহিত করা। সেই ধারা অব্যাহত থাকছে এবারের উৎসবেও।

বরাবরের মতো এবারও রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থার পক্ষ থেকে দেওয়া হবে গুণীজন সম্মাননা। এ সম্মাননা পাচ্ছেন বরেণ্য বাচিকশিল্পী আশরাফুল আলম ও কণ্ঠশিল্পী রফিকুল আলম। দু’জনই স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দসৈনিক।

সকাল ১০টায় উৎসবের উদ্বোধন ও গুণীজন সম্মাননা দেবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। সকাল ১১টা থেকে শুরু হবে সংগীত পরিবেশনা। মাঝে বিরতি নিয়ে বিকেল ৫টা থেকে হবে আবৃত্তি ও সংগীত অনুষ্ঠান। পরদিন শনিবার বিকেল ৫টা থেকে হবে আবৃত্তি ও সংগীত অনুষ্ঠান। এবারের উৎসবে সারাদেশ থেকে প্রায় ২০০ শিল্পী একক ও দলীয় পরিবেশনায় অংশ নেবেন। এর মধ্যে রয়েছেন বুলবুল ইসলাম, ফাহিম হোসেন চৌধুরী, রোকাইয়া হাসিনা, অদিতি মহসিন, অরূপ রতন চৌধুরী, চঞ্চল খান, লিলি ইসলামসহ বেশ কয়েকজন প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী।

উদ্বোধনী পর্বে অংশ নেবে পাঁচটি সংগীত দল। এগুলো হলো- সুরতীর্থ, সংগীতভবন, বিশ্ববীণা, বুলবুল ললিতকলা একাডেমি (বাফা) ও উত্তরায়ণ। জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হবে। এর পর থাকবে পরপর দুটি কোরাস। দু’দিনের অনুষ্ঠানে গানের পাশাপাশি আবৃত্তি পরিবেশনায় অংশ নেবেন- বাচিকশিল্পী আশরাফুল আলম, জয়ন্ত রায়, বেলায়েত হেসেন, মাহমুদা আখতার ও রেজিওয়ালী লীনা। ৩৩তম এ উৎসব করোনাকালে মারা যাওয়া শিল্পী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, কবি ও সংস্কৃতজনদের স্মৃতির প্রতি উৎসর্গ করা হয়েছে।

এম/

আরো পড়ুন:

‘সোনার তরী’র আজ ৮০০ তম পর্বের সফল ও নান্দনিক আয়োজন

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ