spot_img
29 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

৩রা অক্টোবর, ২০২২ইং, ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

চন্দ্রপৃষ্ঠে ভ্রমণের অনুভূতি পাওয়া যাবে দুবাইয়ে

- Advertisement -

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, সুখবর বাংলা: পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই। ঝাঁ-চকচকে ও সুউচ্চ ভবন, ছুটি কাটানোর বিলাসী সব ব্যবস্থা পর্যটকদের শহরটিতে টেনে আনে। এবার দুবাইয়ে চাঁদের আদলে রিসোর্ট নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়েছে। পর্যটকদের আকৃষ্ট করতেই ঠিক যেন নকল চাঁদ বানানো হচ্ছে সেখানে। সেই চাঁদে চন্দ্রপৃষ্ঠে ভ্রমণের অনুভূতি পাওয়া যাবে। যেখানে ব্যয় হবে ৫ বিলিয়ন অর্থাৎ ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের অর্থনীতিতে মুন ওয়ার্ল্ড রিসোর্ট নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে আশা উদ্যোক্তাদের। কানাডার  স্থাপত্য প্রতিষ্ঠান মুন ওয়ার্ল্ড রিসোর্ট ইনকরপোরেশন (এমডব্লিউআর) রিসোর্টটি নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা সান্দ্রা জি ম্যাথুস ও মিখায়েল আর হ্যান্ডারসন জানিয়েছেন, প্রস্তাবিত রিসোর্টের ভবনের উচ্চতা হবে ৭৩৫ ফুট বা ২২৪ মিটার। এটি নির্মাণে ব্যয় হবে ৫০০ কোটি ডলার। নির্মাণ কাজ আগামী ৪৮ মাসের মধ্যে শেষ হবে বলে আশা করছেন তারা।

দুবাই শহরটিকে ঘিরে উচ্চাভিলাষী স্থাপত্য প্রকল্পের বিষয়টি আকস্মিক নয়। এরই মধ্যে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন বুর্জ খলিফা নির্মাণ করা হয়েছে সেখানে।

শহরটি পাম জুমেইরাহ সম্পূর্ণ করার মাধ্যমে স্থাপত্য প্রকল্পের চ্যালেঞ্জগুলো গ্রহণ করার ক্ষমতা প্রদর্শন করেছে এবং বিশ্বের বৃহত্তম ফেরিস হুইলের মতো ছোট প্রকল্পগুলোও বাস্তবায়ন হয়েছে সেখানে। সুতরাং, দুবাই যখন চাঁদের স্টাইলযুক্ত রিসোর্ট তৈরি করার কথা ভাবে তখন এটি ঠিক চাঁদের ছবি নয়।

কি কি অফার থাকছে ওই রিসোর্টে?

পর্যটকদের জন্য রিসোর্টে থাকবে স্পা, নাইটক্লাব, সম্মেলনকক্ষ, লাউঞ্জ, ব্যক্তিগত আবাসের ব্যবস্থাসহ আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা। ভবনটি মহাকাশ প্রতিষ্ঠান ও নভোচারীরা প্রশিক্ষণের কাজেও ব্যবহার করতে পারবেন। বিলাসবহুল এ রিসোর্টে প্রতিবছর এক কোটি পর্যটকের আনাগোনা সম্ভব হবে।

মুন ওয়ার্ল্ড রিসোর্টের বিশেষ সুবিধা পর্যটকরা চন্দ্রপৃষ্ঠে ভ্রমণের মতো অনুভূতি পাবেন। সেখানে লুনার কলোনি নামে একটি স্থান থাকবে। সেখানে বছরজুড়ে ২৫ লাখ ভ্রমণকারী চন্দ্রপৃষ্ঠে ভ্রমণে যাওয়ার মতো স্বাদ পাবেন। দুবাইয়ের মুন ওয়ার্ল্ড রিসোর্টে আরও থাকবে ‘স্কাই ভিলা’। যেখানে চাঁদের আবাসন এলাকায় বসবাসের মতো অনুভূতি পাবেন পর্যটকরা।

বিলাসবহুল এই রিসোর্ট নির্মাণের দায়িত্ব পাওয়া প্রতিষ্ঠানটি বলছে, মুন ওয়ার্ল্ড রিসোর্ট, পর্যটন, বাণিজ্যিক, আবাসন, অবকাঠামো, আর্থিক সেবাপ্রতিষ্ঠান, বিমান চলাচল, জ্বালানি সম্পদ, কৃষি, প্রযুক্তি, শিক্ষাসহ সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ছাড়াও ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা ও এশিয়ায় আরও তিনটি চাঁদের আদলে বিলাসবহুল রিসোর্ট নির্মাণের পরিকল্পনা করছে কানাডার স্থাপত্য প্রতিষ্ঠানটি।

সূত্র: অ্যারাবিয়ান বিজনেস, টেকটাইমস

আরো পড়ুন:

যুক্তরাজ্যের রাজপরিবারের ইতিবৃত্ত, কারা আছেন এবং রাজাকে কী করতে হয়

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ