spot_img
28 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে ভ্যাট আদায় ও ফাঁকি রোধে বসানো হচ্ছে ৪০০ ইএফডি মেশিন

- Advertisement -

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুখবর ডটকম: ভ্যাট আদায় বৃদ্ধি ও ফাঁকি রোধ করতে নতুন ৪০০ ইএফডি (ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস) মেশিন বসাতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট। ফেব্রুয়ারির শুরুতে ভ্যাট কমিশনারেটের আওতাধীন ৮টি বিভাগে এসব ইএফডি মেশিন বসানো হবে।

ইএফডি মেশিন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কেন্দ্রীয় সার্ভারের সাথে সংযুক্ত থাকবে। ক্রেতা মূল্য পরিশোধের সময় সাথে সাথে আরোপিত ভ্যাট আলাদা হয়ে যাবে।

পাশাপাশি প্রতিমাসে ৮টি বিভাগে একযোগে ২ দিনব্যাপী ভ্যাট মেলার আয়োজন করছে ভ্যাট কমিশনারেট। ইএফডি মেশিন এবং ভ্যাট মেলাসহ নানামুখী উদ্যোগে গত ২ অর্থবছরের ঋণাত্বক প্রবৃদ্ধি কাটিয়ে আগামীতে ভ্যাট আদায়ে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হবে বলে আশা সংশ্লিষ্টদের।

চট্টগ্রাম কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের কমিশনার মোহাম্মদ আকবর হোসেন বলেন, ‘ভ্যাট মেলা আয়োজনের ফলে ব্যবসায়ীদের মধ্যে অনলাইনে রিটার্ন দাখিলের ক্ষেত্রে আগ্রহ ও উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়া ভ্যাট ফাঁকি রোধে বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে বসানো হচ্ছে ইএফডি মেশিন। এর ফলে চলতি অর্থবছর শেষে রাজস্ব আদায়ের লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে প্রত্যাশা আমাদের’।

চট্টগ্রাম ভ্যাট কমিশনারেট ৮টি বিভাগে ভাগ করা হয়। এগুলো হচ্ছে আগ্রাবাদ বিভাগ, চান্দগাঁও বিভাগ, চট্টলা বিভাগ, রাঙামাটি বিভাগ, পটিয়া বিভাগ, কক্সবাজার বিভাগ, খাগড়াছড়ি বিভাগ এবং বান্দরবান বিভাগ।

চট্টগ্রাম ভ্যাট কমিশনারেট এর ডেপুটি কমিশনার সাইদ আহমেদ রুবেল বলেন, ‘আবাসিক হোটেল, রেস্তোরাঁ, ফাস্ট ফুড, মিষ্টান্ন ভান্ডার, বিউটি পার্লার, তৈরি পোশাকের দোকান, ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, জিমসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বসানো হচ্ছে ৪০০ ইএফডি মেশিন। এর আগে বিভিন্ন বিভাগে গত বছরের আগষ্টে ২০টি এবং সেপ্টেম্বরে ১০০টি ইফডি মেশিন বসানো হয়। আগামী ১০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নতুন ৪০০টি মেশিন বসলে এই সংখ্যা দাঁড়াবে ৫২০-এ’।

তিনি আরো বলেন, ‘ভ্যাট আইন অনুযায়ী বাংলাদেশে যে সব ব্যবসায়ীদের বাৎসরিক লেনদেন ৫০ লাখ টাকার বেশি তারা ভ্যাটের আওতাধীন হবে। চট্টগ্রামে প্রাথমিক জরিপ চালিয়ে ৯০০টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ইএফডি ব্যবহারের উপযোগী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরো তালিকা করা হবে’।

প্রতি মাসে দুই দিনের ভ্যাট মেলা

ভ্যাট আদায় বাড়াতে চট্টগ্রাম কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট প্রতিমাসে ৮টি বিভাগে একযোগে ২ দিনের ভ্যাট মেলা আয়োজন করছে। গত ১১ ও ১২ জানুয়ারি ভ্যাট মেলা আয়োজনে এসেছে সফলতা। দেশের ১২টি ভ্যাট কমিশনারেটের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভ্যাট রিটার্ন জমা হয়েছে চট্টগ্রাম ভ্যাট কমিশনারেট এর মেলায়।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ