spot_img
31 C
Dhaka
বুধবার, জুলাই ৬, ২০২২
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

চট্টগ্রাম টেস্টে জায়গা পেয়েই নায়ক নাঈম

ক্রীড়া প্রতিবেদক, সুখবর বাংলা: চট্টগ্রাম টেস্টেই খেলবেন কি না, তা নিয়ে সংশয় ছিল নাঈম হাসানের। শেষ পর্যন্ত দলে সুযোগ দেয়ার প্রতিদান দিলেন নাঈম হাসান। ডাবল সেঞ্চুরির পথে থাকা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে ফিরিয়ে শ্রীলঙ্কার ইনিংস গুটিয়ে দিয়ে প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট পূর্ণ করলেন এই অফস্পিনার। এ নিয়ে টেস্টে তৃতীয়বারের মতো ইনিংসে ৫ উইকেট পেলেন নাঈম।

দিমুথ করুণারত্নের উইকেট দিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম ব্রেকথ্রু এনে দেয়া নাঈম পুরো ইনিংসেই করেছেন দারুণ বোলিং। অধিনায়কের আস্থার প্রতিদান দিয়ে প্রয়োজনের সময় এনে দিয়েছেন উইকেট। একে একে তিনি সাজঘরে ফিরিয়েছেন ওশাদা ফার্নান্ডো, দিনেশ চান্দিমাল, নিরোশান ডিকওয়েলা, আশিথা ফার্নান্ডো ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে। ৬ উইকেট  নিয়ে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের নায়ক নাঈম হাসানই। প্রথম ইনিংসে তার বোলিং ফিগার ৩০-৪-১০৫-৬।

আট টেস্ট ক্যারিয়ারে নাঈম হাসান ৫ উইকেট পেয়েছেন তিনবার। এই ম্যাচের বোলিং নৈপুণ্যই তার ক্যারিয়ারসেরা। টেস্টে তার মোট উইকেটসংখ্যা ৩১।

শ্রীলঙ্কা দলের সামনে ৪০০ রান যখন বাস্তবতা, তখনই উড়িয়ে মারতে গিয়ে সাকিব আল হাসানের হাতে ধরা পড়েন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ১৯৯ রানে আউট হয়ে অল্পের জন্য পেলেন না ডাবল সেঞ্চুরি। তবে বাংলাদেশের জন্য আনন্দের উপলক্ষ্য হয়ে এলো নাঈম হাসানের ৬ উইকেট। টেস্ট ক্যারিয়ারে তৃতীয়বারের মতো ইনিংসে ৫ উইকেট পেলেন তিনি।

এদিকে মধ্যাহ্নবিরতির আগে জোড়া আঘাত হেনে টাইগার শিবিরে স্বস্তি ফিরিয়েছিলেন নাঈম। আর বিরতির পর উইকেট শিকারের উৎসবে যোগ দিয়ে জোড়া আঘাত হানেন সাকিব। মধ্যাহ্নবিরতির পর অধিনায়ক মুমিনুল হক বল হাতে তুলে দেন নাঈমের হাতে। পরের ওভারে আক্রমণে আসেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। প্রথম বলে ম্যাথিউসকে ১ রান দেয়ার পর, দ্বিতীয় বলেই বোল্ড আউট করেন রামেশ মেন্ডিসকে (১)। পরের বলেই তার ঘূর্ণিতে পরাস্ত লাসিথ এমবুলদেনিয়া। রিভিউ নিয়ে এলবিডব্লিউ থেকে রেহাই পেলেন না এমবুলদেনিয়া (০)।

এর আগে একই ওভারে দিনেশ চান্দিমাল ও নিরোশান ডিকওয়েলাকে সাজঘরে ফিরিয়ে টাইগার শিবিরে স্বস্তি ফিরিয়েছেন স্পিনার নাঈম হাসান। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে ১৪৮ বল মোকাবিলায় ৬৬ রানের ইনিংস খেলে নাঈম হাসানের এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরেন দিনেশ চান্দিমাল। মাঠ ছাড়ার আগে তিনি ক্রিজে থিতু  হওয়া অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের সঙ্গে গড়েন ১৩৬ রানের বড় জুটি।

এদিকে চান্দিমাল উইকেটে থিতু হওয়া ম্যাথিউসকে যোগ্য সঙ্গ দিলেও ষষ্ঠ উইকেটে নামা ডিকওয়েলাকে সে সুযোগ দেননি নাঈম। ইনিংসের ১১৩তম ওভারে এসে প্রথম বলে চান্দিমালকে ফেরানোর পরে পঞ্চম বলে বোল্ড আউট করেন ডিকওয়েলাকে। তিনি ৩ বল মোকাবিলায় ৩ রান করেন।

এর আগে প্রথম দিন ওশাদা ফার্নান্দো ৩৬, দিমুথ করুণারত্নে  ৯, কুশাল মেন্ডিস ৫৪ ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ৬ রান করে সাজঘরে ফেরেন। টাইগার বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৬ উইকেট নিজের ঝুলিতে পুরেছেন নাঈম। সাকিবের শিকার ৩, একটি উইকেট শিকার করেছেন তাইজুল ইসলাম।

আরো পড়ুন:

সাকিব আল হাসান, লেফট আর্ম চায়নাম্যান

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles