spot_img
28 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ
***‘বেহেশতে আছি’: নিজের মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী***জেনে নিন তারকাদের আসল ফেসবুক আইডি চেনার উপায়***কথাবার্তায়, আচার-আচরণে দায়িত্বশীল হতে নেতাকর্মীদের প্রতি ওবায়দুল কাদেরের আহ্বান***কচ্ছপের ১০০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ৩ দিনব্যাপী অনুষ্ঠান! ***দিনে সাশ্রয় হচ্ছে দেড় হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ***অর্থবছরের প্রথম চল্লিশ দিনেই ৪০ কোটি টাকার খাজনা আদায়***সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশকে দৃষ্টান্ত মনে করেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট***টি-টোয়েন্টি: এশিয়া কাপ-বিশ্বকাপে বাংলাদেশের অধিনায়ক সাকিব***বই পড়তে ভালবাসেন? বইয়ের যত্ন নেবেন কী ভাবে?***তারুণ্য হোক উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগ ঝুঁকিমুক্ত

করোনাকালীন উদ্বেগ দূর ও মানসিক শক্তি বাড়াতে পারে যোগব্যায়াম

- Advertisement -

সুখবর প্রতিবেদক: চলছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের মহমারী। এ নিয়ে অনেকেই উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় আছেন। কিন্তু এই উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা মানসিক শক্তি কমিয়ে আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল করে দিতে পারে। তাই এই কঠিন পরিস্থিতিতে মন শান্ত রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এতে যেমন বর্তমান সময়কে মেনে নেয়া যায়, তেমনি সুস্থ থাকার বিষয়টিও সহজ হয়।

এ জন্য বেছে নিতে পারেন যোগব্যায়াম (Yoga)। কেননা শরীর ও মন সুস্থ রাখতে প্রাচীনকাল থেকেই যোগব্যায়াম বা ইয়োগা বেশ জনপ্রিয়।

শুধু শরীর ও মন সুস্থই রাখে না নিয়মিত যোগব্যায়াম করলে ওজন কমে, শরীরে রক্ত চলাচল বাড়ে, হৃদরোগের ঝুঁকি কমে। শারীরিক সুস্থতার পাশাপাশি যোগব্যায়ামের দারুণ প্রভাব আছে মনের ওপর। নানা গবেষণায় দেখা গেছে, মানসিক চাপ, দুশ্চিন্তা ও আতঙ্ক নিয়ন্ত্রণে যোগব্যায়াম অত্যন্ত কার্যকর। তাই প্রতিদিনের কর্মতালিকায় যোগব্যায়াম রাখার মাধ্যমে মন এবং শরীরকে শক্তিশালী করে আপনি করানোভাইরাসের চ্যালেঞ্জ কাটিয়ে উঠতে পারেন।

নিয়মিত যোগব্যায়াম করলে শ্বাসকষ্টের মতো সমস্যা অনেকটা রুখে দেওয়া সম্ভব। এবার জেনে নেওয়া যাক যোগব্যায়াম সম্পর্কে-

প্রাণায়াম

সোজা হয়ে বসে ধীরে ধীরে নাক দিয়ে লম্বা শ্বাস নিন। একইভাবে ধীরে ধীরে মুখ দিয়ে শ্বাস ছাড়ুন। এভাবে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ বার প্রাণায়াম করতে পারেন। এই ব্যায়াম মানসিক অবসাদ দূর করতে সাহায্য করে। তাছাড়া করোনা সংক্রমিত হলে ফুসফুসের সমস্যা প্রকট হয়। এ কারণে চিকিৎসকরা এই সময় ফুসফুসের ব্যায়াম করার পরামর্শ দিচ্ছেন।

উত্তরাসন

উত্তরাসন পদ্ধতিতে ব্যায়ামের জন্য প্রথমে সোজা হয়ে দাঁড়াতে হবে। এবার শরীরের ওপর দিকটি নীচে ঝুঁকে হাত দিয়ে পায়ের পেছনে স্পর্শ করতে হবে। ৫ সেকেন্ড এভাবে

থেকে আবার সোজা হয়ে দাঁড়াতে হবে। এভাবে প্রতিদিন ৫ বার উত্তরাসন পদ্ধতিতে ব্যায়াম করতে পারেন। এই পদ্ধতিতে ব্যায়াম করলে শরীরে রক্ত চলাচল ঠিক থাকে। এছাড়া মস্তিষ্কের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকে।

মেডিটেশন

মাইন্ডফুলনেস মেডিটেশন উদ্বেগ কমাতে সাহায্য করে। মেডিটেশনে মন অনেক বেশি ইতিবাচক হয়। আত্মবিশ্বাস ও স্থিরতা ফিরে আসে। নিয়মিত মেডিটেশন করা এই সময়ের জন্য খুবই জরুরি। কেননা শরীরের মতো মনের যত্ন নেওয়াও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা থেকেই বড় সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই মন শান্ত রেখে স্বাভাবিকভাবেই পাড়ি দিতে হবে এই কঠিন পরিস্থিতি।

অফিসের কাজ বা পড়াশোনার জন্য যাদের দীর্ঘ সময় ধরে বসে থাকতে হয় তারা প্রায়শই চোখ, ঘাড়, কাঁধ, পিঠ এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে দীর্ঘস্থায়ী ব্যথার কথা বলে থাকেন। বিভিন্ন ওষুধ সাময়িকভাবে এসব ব্যথা দূর করলেও তা আবারও ফিরে আসতে পারে। এসব ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে আপনি যোগব্যায়াম করতে পারেন

করোনার এই দুঃসময়ে অনেকেই অনিদ্রায় ভুগছেন কিংবা মনে বড় কোনো চাপ অনুভব করছেন। এই পরিস্থিতিতে নিদ্রাহীনতা দূর এবং আপনার মানসিক শান্তি দিতে পারে ইয়িন যোগব্যায়াম। আপনার প্যারাসিমপ্যাথেটিক স্নায়ুতন্ত্রকে সক্রিয় করে দেহের বিশ্রাম এবং হজম প্রক্রিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করে এই ইয়িন যোগব্যায়াম।

করোনাভাইরাস মহামারি চলাকালীন হাঁচি দেয়ার ঘটনা আপনাকে জনসাধারণের মধ্যে অস্বস্তিতে ফেলতে পারে। এ ক্ষেত্রেও যোগব্যায়াম বেশ কার্যকরি। আপনাকে অ্যালার্জিক রাইনাইটিস থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করতে পারে যোগব্যায়াম।

মোটকথা উদ্বেগ দূর করতে, অতিরিক্ত ওজন কমাতে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে এবং শক্তিশালী শরীর গঠনে যোগব্যায়ামের বিকল্প নেই।

আন্তর্জাতিক যোগ দিবস আজ

আন্তর্জাতিক যোগ (Yoga) দিবস আজ। ২০১৫ সাল থেকে প্রতিবছর ২১ জুন বিশ্বব্যাপী দিবসটি উদযাপন করা হয়। এবার দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে- স্বাস্থ্যের জন্য যোগব্যায়াম, ঘরেই হোক যোগব্যায়াম।

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত মানুষের জন্য দিনটি খুবই তাৎপর্যপূর্ণ।

জানা গেছে, ২০১৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দেওয়ার সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করার প্রস্তাব দেন। সে বছরই ১১ ডিসেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ২১ জুন তারিখটিকে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস বলে ঘোষণা করে।

প্রতিবছর দিবসটি উপলক্ষে রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে কর্মশালা ও নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এবার সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতের জন্য ঘরে থেকেই আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপন করা হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতিতে বদলে যাওয়া মানসিক অবস্থার সঙ্গে যোগব্যায়ামের দারুণ যোগসূত্র রয়েছে। এ সময়টা কাজে লাগানোর জন্য যোগব্যায়াম একটি ভালো উপায় বলে মনে করেন অনেকে।

‘যোগা’ শব্দটি সংস্কৃত শব্দ ‘যুজা’ থেকে এসেছে, যার অর্থ ‘যোগ দান ও একত্রিত হওয়া’। বর্তমানে যুগের ব্যস্ততার মধ্যে একজন মানুষ যোগ ব্যায়ামের মাধ্যমে তার মন, শরীর ও হৃদয়ের মেলবন্ধন ঘটাতে পারেন। পেতে পারেন এক অদ্ভূত শান্তির অনুভূতি। যোগ চর্চায় দলবদ্ধ হয়ে মানুষ বিভিন্ন প্রাণায়াম ও আসনের অভ্যাস করে থাকে। সুস্থ সবল থাকার জন্য যোগাভ্যাস করা অত্যন্ত জরুরি।

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ