spot_img
32 C
Dhaka
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img

৫ই অক্টোবর, ২০২২ইং, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯বাংলা

কবিতা: ‘বিষবৃক্ষ’- খোকন কুমার রায়

- Advertisement -

বিষবৃক্ষ

খোকন কুমার রায় :

আমার গায়ে রঙ মাখিয়ে,

কেনই বা হায় সঙ সাজালে?

কুকুর লেলিয়ে আমার পিছে,

হৃদয়টাকে খামচে দিলে!

আমি তো রই সহজ-সরল

বুঝি না তো তোমার গরল,

কারো সাথে নাই যে বিরোধ

তবু কেন পথ আটকালে?

যে বুকটাকে জড়িয়ে নিতে

কেন দিলে আগুন তাতে?

ঝলসানো এই হৃদয় নিয়ে,

মৃত্যু আমার তিলে তিলে।

বাবুটাকে ঘুম পাড়াতাম

রূপকথার গল্পছলে

দানবরা কেউ প্রতিবেশী

ভাবিনি তা কোনো কালে।

মানুষরূপী অনেক দানব,

মায়ের বুকে আঁচর কাটে।

যত্নে গড়া কুটির আমার

ভস্ম হয়ে ধুলায় লোটে।

লকলকিয়ে জিহ্বা দোলে

তাকায় রক্ত চক্ষু মেলে

জাতির রক্ত পান করে যায়,

হায়েনারা দলে দলে।

তক্কে তক্কে ঘাপটি মেরে,

সুযোগ বুঝে ঝাঁপিয়ে পড়ে

উজাড় করে ফুলের বাগান

হাসছে তারা উচ্চস্বরে!

লাল রক্ত নীল হয়ে যায়,

হৃদয় পোড়া যন্ত্রণাতে

মানুষ হয়ে কেমনে বাঁচি?

এমন করুণ অন্তর্ঘাতে!

অন্ধকারে বিষবৃক্ষ

তড়তড়িয়ে উঠছে বেড়ে

বিষের রেনু দেয় ছড়িয়ে,

কোমলমতি হৃদয় জুড়ে।

সংখ্যাগুরু, সংখ্যালঘু

এই ভেদাভেদ করে যারা,

“সবার উপর মানুষ সেরা”

জানে না ঐ উন্মাদেরা।

আরো পড়ুন:

কবিতা: ‘জয় বাংলা’- খোকন কুমার রায়

 

 

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ