spot_img
17 C
Dhaka

৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ইং, ২২শে মাঘ, ১৪২৯বাংলা

এক বার জুতোর ফিতা বেঁধেই ১ কোটি ২৩ লাখ টাকা পেয়েছিলেন পেলে!

- Advertisement -

ক্রীড়া প্রতিবেদক, সুখবর ডটকম: শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে পৃথিবী ছেড়েছেন ব্রাজিল কিংবদন্তি পেলে। মৃত্যুর পর থেকেই গবেষণা শুরু হয়েছে ‘রাজা’ পেলের জীবনের নানা অজানা ঘটনা বের করে আনার। অনেক অজানা ঘটনা বের করে আনাও হচ্ছে। এই যেমন বেরিয়ে এসেছে, কিংবদন্তি পেলের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের এক ক্রীড়াসামগ্রী প্রস্তুতকারক কোম্পানির অদ্ভুত এক চুক্তির খবর! শুধু জুতোর ফিতা বেঁধেই পেলে পেয়েছিলেন ১ লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটা ১ কোটি ২৩ লাখ ৪৯ হাজার ৮০ টাকা!

ঘটনাটা সেই ১৯৭০ সালের। ঐ সময়ে ১ কোটি ২৩ লাখ ৪৯ হাজার ৮০ টাকা বর্তমানের কত শত কোটি টাকার সমান একবার কল্পনা করুন। শুধু একবার জুতোর ফিতা বেঁধেই ব্রাজিল কিংবদন্তির বিশাল অঙ্কের ঐ টাকা পাওয়ার পেছনের কারণ ছিল দুই ব্যবসায়ী ভাইয়ের দ্বন্দ্ব।

দরিদ্র মায়ের কাপড় কাচার ঘর থেকে ১৯২৪ সালে জার্মানির দুই ভাই জুতোর ব্যবসা শুরু করেন। অ্যাডলফ ড্যাসলার ও রুডলফ ড্যাসলার নামের দুই ভাই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম দেন ‘ড্যাসলার ব্রাদার্স শু ফ্যাক্টরি।’ কিন্তু অচিরেই দুই ভাইয়ের মধ্যে শত্রুতা তৈরি হওয়ায় ১৯৪০ সালে তারা ব্যবসা আলাদা করে ফেলেন। ব্যবসা আলাদা হলেও দুই ভাইয়ের মধ্যে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা চলতে থাকে। তাদের এই প্রতিদ্বন্দ্বিতার মধ্যেই বিশ্ব ফুটবলে আবির্ভূত হন পেলে। ব্রাজিল কিংবদন্তির সঙ্গে চুক্তি করতে দুই ভাইয়ের প্রতিষ্ঠানই ঝাঁপিয়ে পড়ে। তাতে তাদের শত্রুতা আরো বাড়ে।

তাদের বিরোধিতা এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে, শেষ পর্যন্ত দুই ভাই-ই পেলের সঙ্গে চুক্তি করা থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়। তাদের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি হয়, তারা কেউই পেলের সঙ্গে চুক্তি করবেন না। কিন্তু ১৯৭০ সালে সেই চুক্তি ভঙ্গ করে রুডলফ ড্যাসলারের প্রতিষ্ঠান গোপনে পেলের সঙ্গে চুক্তি করে। চুক্তিটা করা হয় ব্রাজিল ও পেরুর মধ্যকার ১৯৭০ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে।

পেলেকে বলা হয়, ম্যাচ শুরুর আগে মাঠের মাঝখানে গিয়ে জুতোর ফিতা বাঁধতে। পেলে তাই করেন! ব্যস, এটুকু করেই বিশাল অঙ্কের ঐ টাকা পকেটে পুরেন ব্রাজিল কিংবদন্তি। পেলের সেই জুতোর ফিতা বাঁধার ছবি তোলা এবং ভিডিও করার জন্য ক্যামেরাম্যানকেও টাকা দেওয়া হয়। পরে অবশ্য এই চুক্তির খবর জেনে যায় অ্যাডলফ ড্যাসলার। তাতে কি! ততক্ষণে টাকা তো পেলের পকেটে।

এম এইচ/ আই. কে. জে/

আরও পড়ুন:

পেলেকে শেষ দেখার অপেক্ষায় তার শতবর্ষী মা

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ