spot_img
29 C
Dhaka

২৭শে নভেম্বর, ২০২২ইং, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

আসছে বিয়ের মওসুম, পরিপাটি মেকআপ করবেন কীভাবে?

- Advertisement -

লাইফস্টাইল ডেস্ক, সুখবর বাংলা: বিয়ের দিনটা সব মেয়ের কাছেই স্পেশাল। জীবনে একবারই এই দিনটা আসে। তাই পরিপাটি মেকআপ করতে হবে। যাতে সবচেয়ে সুন্দর দেখায়। তাক লেগে যায় সকলের। সামনেই বিয়ের মসুওম। ঠিক তার আগেই রইল বিয়ের মেকআপের কিছু টিপস। এগুলো মেনে চললে ব্রাইডাল আর্টিস্টের দরকার হবে না। নিজেই হবেন নিজের মেকআপ স্পেশালিস্ট।

ত্বক যেন প্রস্তুত থাকে: ছবি আঁকার আগে যেমন ক্যানভাস ঠিক করতে হয়, মেকআপের আগে তেমনই ত্বক। এ জন্য প্রথমে হায়ালুরোনিক অ্যাসিড সিরাম, একটা জেল ময়শ্চারাইজার কিংবা হালকা তেল ব্যবহার করা যায়। তবে হ্যাঁ, ত্বকের ধরন অনুযায়ী পণ্য বাছাই করতে হবে।

প্রথমেই প্রাইমার: পরিষ্কার এবং ময়েশ্চারাইজড ত্বকে প্রথমেই প্রাইমার লাগাতে হবে। এ জন্য হাইড্রেটিং এবং পোরলেস ম্যাটিফাইং প্রাইমার বেছে নেওয়া যায়। এতে মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী হবে। দেখতেও ভাল লাগবে।

রঙ: ভুল খাদ্যাভ্যাস এবং অপর্যাপ্ত ঘুমের কারণে চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে। বিয়ের আগে তাই সাবধানে থাকতে হবে। আর বিয়ের দিন বেছে নিতে হবে সঠিক রঙ। যাতে তরতাজা দেখায়। চোখের নিচে কালো দাগ ঢাকতে কমলা এবং যে কোনও লালভাব ঢাকতে সবুজ রঙ ব্যবহার করা যায়। তবে হ্যাঁ, রঙগুলো ঠিক ঠিক মিশিয়ে নিতে ভুললে চলবে না।

ফাউন্ডেশন: কম হোক কিংবা বেশি, ফাউন্ডেশন তো লাগাতেই হবে। শুধু মুখে নয়, ঘাড়েও। ফাউন্ডেশনের সঙ্গে ২ ফোঁটা ফেসিয়াল অয়েল যদি মিশিয়ে নেওয়া যায়, তাহলে আর শুকোবে না। এ জন্য ভেজা স্পঞ্জ বা কাবুকি ব্রাশ ব্যবহার করা যেতে পারে।

এবার কনসিলার: চোখের নিচে এবং ব্রণ ও কালো দাগের উপর কনসিলার লাগাতে হবে। কনসিলার ব্রাশ বা ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে ব্লেন্ড করে নেওয়া যায়। অনামিকার সাহায্যেও এটা করা যায়। তবে কনসিলার টেনে টেনে লাগালে চলবে না, হালকা ড্যাব করতে হবে।

বেস সেট করতে বানানা পাউডার: নিখুঁত বেস পেতে লাগাতে হবে বানানা পাউডার। তুলতুলে ব্রাশকে পাউডারে ডুবিয়ে নিয়ে মুখে লাগাতে হবে। ফাউন্ডেশন লক করতে এবং ত্বককে ম্যাটিফাই করতে পুরো মুখে হালকা স্ট্রোক দিলেই যথেষ্ট।

কনট্যুর: মুখে গভীরতা আনতে গালের হাড়, চোয়াল এবং ডবল চিনের নিচে লাগাতে হবে কনট্যুর। চিজলড লুকের জন্য, ব্রোঞ্জার বা কনট্যুরটিকে ঠোঁটের খুব কাছে না টেনে বেশিক্ষণ ব্লেন্ড করতে হবে।

গোলাপি গাল পেতে ব্লাশ: গালে প্রাণবন্ত রঙের ফ্লাশ সন্দেহাতীতভাবে সুন্দর দেখায়। চেহারায় যোগ করে তরতাজা ভাব। এ জন্যে গালের হাড়ের উপর ব্লাশ ঝাড়তে হবে। চিবুক এবং নাকেও। তাহলেই গোটা মুখ এক সুতোয় বাঁধা থাকবে।

চোখ: চোখের পাতায় গাঢ় শেড। বাইরের দিকে টেনে ব্লেন্ড করতে হবে। চাইলে লাইনারও ব্যবহার করা যায়। ভ্রু আঁকার পর ২ কোট মাস্কারা লাগাতে ভুললে চলবে না।

মোহময়ী ঠোঁট: বিয়ের দিন ম্যাট লিপস্টিক বেছে নেওয়া উচিত। সাটিন ফিনিশের লিপস্টিকের চেয়ে ম্যাট লিপস্টিক দীর্ঘ সময় থাকে। ঠোঁট মোটা দেখাতে চাইলে ঠোঁটের ভিতরের কেন্দ্রে গ্লস ব্যবহার করতে হবে।

সেটিং স্প্রে: এবার শেষ কাজ, সেটিং স্প্রে। মেকআপ চকচকে এবং উজ্জ্বল দেখাবে। শুধু তাই নয়, সেটিং স্প্রে প্রয়োগ করলে মেকআপ দীর্ঘক্ষণ থাকেও।

এম এইচ/

আরো পড়ুন:

চুল তার ১১০ ফুট লম্বা!

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ