spot_img
22 C
Dhaka

২রা ডিসেম্বর, ২০২২ইং, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

আমি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ভালোবাসি, সমর্থকদের ভালোবাসি: ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো

- Advertisement -

ক্রীড়া ডেস্ক, সুখবর বাংলা: ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে গত মৌসুমে দুর্দান্ত সময় কাটিয়েছেন পর্তুগীজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তবে এরিক টেন হাগের ফুটবল দর্শনের সঙ্গে না মেলায় চলতি মৌসুমের বেশিরভাগ সময় রোনালদোকে কাটাতে হয়েছে বেঞ্চে। এ নিয়ে রোনালদোর মধ্যে বেশ ক্ষোভও দেখা যায়। এবার ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মরগান দেয়া সাক্ষাৎকারে সে ক্ষোভ একেবারে উগড়ে দিলেন তিনি।

চলতি মৌসুমের শুরুতে রোনালদো ইউনাইটেড ছাড়ার জন্য চেষ্টা করেছিলেন। তবে পর্তুগীজ তারকার দাবি, তিনি নিজে যতটা না চেয়েছেন, তার চেয়ে বেশি কোচই তাকে তাড়াতে চেয়েছেন। রোনালদো বলেন, ‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আমার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। এমনকি তারা আমাকে জোরপূর্বক তাড়িয়ে দিতে চেয়েছিল। কোচ চেয়েছেন আমি যেন চলে যাই। শুধু কোচই নয়, ক্লাবের দায়িত্বে থাকা অন্যরাও একই চেষ্টা করেছে। এখানে এসে আমি প্রতারণার শিকার হয়েছি।’

এই সাক্ষাৎকার সম্পর্কে ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মরগান টুইটারে লিখেছেন, ‘রোনালদোর জীবনে দেয়া সবচেয়ে বিস্ফোরক সাক্ষাৎকার এটি।’

টকটিভিতে ‘পিয়ার্স মরগান আনসেন্সরড’ নামের অনুষ্ঠানটি বুধ ও বৃহস্পতিবার দুটি পর্বে প্রচার হবে। তার আগে ব্রিটেনের ডেইলি সানে রোনালদোর সঙ্গে আলাপচারিতা নিয়ে লিখেছেন মরগান।

পিয়ার্স মরগানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রোনালদো কোনো রাখঢাক না রেখেই বলে দিয়েছেন, ইউনাইটেড কোচ টেন হাগের প্রতি তার বিন্দুমাত্র সম্মান নেই। কারণ, আমাকেও তিনি সম্মান দেখান না। কেউ আমাকে সম্মান না দিলে আমি তাকে সম্মান দিই না।’

২০০৯ সালে ওল্ড ট্রাফোর্ড ছেড়ে যাওয়া রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাস হয়ে ২০২১ সালে আবার ইউনাইটেডে ফেরেন।  স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের ফোন পেয়ে প্রিয় ক্লাবে ফিরেই রোনালদো টের পেয়েছেন, ক্লাব হিসেবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অবনমন হচ্ছে। রোনালদো বলেছেন, ‘আমি মনে করি সমর্থকদের সত্য জানা প্রয়োজন। আমি ক্লাবের জন্য সেরাটা দিতে চাই এজন্য আমি এখানে এসেছি। স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন ক্লাব ছাড়ার পর ক্লাবে কোনও পরিবর্তন আসেনি, কিছুই বদলায়নি। আমি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ভালোবাসি, আমি সমর্থকদের ভালোবাসি, তারা আমাকে সাপোর্ট দিয়েছে কিন্তু তারা যদি অন্য কিছু চায় তবে ক্লাবে অনেক অনেক পরিবর্তন প্রয়োজন।’

এছাড়া রোনালদো তার সাবেক সতীর্থ ইংল্যান্ডের ওয়েন রুনির ওপরও রাগ ঝেড়েছেন। রোনালদোর আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে ওয়েন রুনি এই মৌসুমে সমালোচনা করেছিলেন। রোনালদো বলেন, ‘আমি জানি না রুনি আমার এতো বাজেভাবে কেন সমালোচনা করে। হয়তো তার ক্যারিয়ার শেষ এবং আমি এখনও শীর্ষ পর্যায়ে খেলছি। আমি এটা বলতে চাই না যে তার চেয়ে আমি ভালো খেলোয়াড়, যেটা আসলে সত্যি। এছাড়া আরেকটি কথা না বলে পারছি না, আমি তার চেয়ে দেখতে ভালো, যা কিনা সত্য।’

এম/

আরো পড়ুন:

চোটমুক্ত থেকে বিশ্বকাপে যাচ্ছেন মেসি-নেইমার-এমবাপ্পেরা

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ