spot_img
20 C
Dhaka

৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ইং, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯বাংলা

অস্ট্রেলিয়াকে পেয়ে ফ্রান্সের গোল উৎসব

- Advertisement -

স্পোর্টস ডেস্ক, সুখবর ডটকম: কাতার বিশ্বকাপের অন্যতম অঘটনগুলোর একটি সৌদি আরবের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার ২-১ গোলের ব্যবধানে পরাজয়। এরপর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শুরুতেই ৯ মিনিটে ফ্রান্সের গোল খাওয়া আরেকটি অঘটনের আভাস দিচ্ছিল। কিন্তু কিসের কি! ফ্রান্স যে বিশ্বকাপের অন্যতম ফেভারিট তা হাড়ে হাড়ে বুঝিয়ে দিল তারা।

আল জানুব স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ৪-১ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফ্রান্স। জিরুড জোড়া গোল করেন। এমনাপ্পে ও র‍্যাবিওট একটি করে গোল করেন। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন গুডউইন।

অথচ শুরুটা হয়েছিল বাজে। ম্যাচের ৯মিনিটে গোল দিয়ে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। ডি বক্সের ডান পাশে বল পেয়ে ল্যাকি কোনাকুনি দারুণ ক্রস করেন। দ্রুততার সঙ্গে এসে লক্ষ্যভেদ করতে বিন্দুমাত্র ভুল করেননি গুডউইন। ফরাসিদের স্তব্ধ করে উল্লাসে ভাসে অস্ট্রেলিয়া শিবির।

ফ্রান্সের ত্রাতা হয়ে আসেন র‍্যাবিওট। ২৬ মিনিটে সমতা আনে ফ্রান্স। কর্নার থেকে ডি বক্স হয়ে বল যায় মাঠের একটু সামনে। মাঝে একজন হয়ে বাঁ দিকে হার্নান্দেজের কাছে যায়। তিনি উড়িয়ে ক্রস করেন আবার ডি বক্সে। সেখানে থাকা র‍্যাবিওট দারুণ হেডে লক্ষ্যভেদ করেন। সমতা আনতে বেশি সময় নেননি বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

র‍্যাবিওটের পর জিরুডের গোলে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া। ৩২ মিনিটে ২-১ গোলে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। এমবাপ্পে থেকে বল পেয়ে ডি বক্সের বাম দিক থেকে কাট ব্যাক করেন প্রথম গোলদাতা র‍্যাবিওট। বল আসে ডি বক্সের সেন্টারে থাকা জিরুডের কাছে। পায়ের আলতো টোকায় ফাঁকা পোস্টে গোল দিতে ভুল করেননি ফ্রান্সের এই স্ট্রাইকার। ফ্রান্সের হয়ে সবশেষ ২৭ ম্যাচে এটি জিরুডের দ্বিতীয় গোল।

বিরতি থেকে ফিরে গোলের দেখা পেতে বেশ কিছুক্ষণ ফ্রান্সকে অপেক্ষা করতে হয়। ৩-১ গোলে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। এর আগে নিশ্চিত গোল মিস করেছেন এমবাপ্পে। এবার আর সেই ভুল হয়নি। ৬৮ মিনিটে ডান দিক থেকে ডেম্বেলে ডি বক্সের মাঝামাঝি জায়গায় আলতো শটে তুলে দেন। দুই ডিফেন্ডারের মাঝে লাফিয়ে উঠে এমবাপ্পে হেডে বল জড়ান জালে।

এমাবাপ্পে গোল করার তিন মিনিট পরেই আবার গোল করারন। বাঁ দিক থেকে এমবাপ্পের ক্রস থেকে দারুণ হেডে বল জড়ান জালে। ৪-১ ব্যবধানে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। জিরুড ছাড়া বাকি দুটি গোল করেন র‍্যাবিওট ও এমবাপ্পে। এই গোলের মাধ্যমে ফরাসি জার্সিতে যৌথভাবে সর্বোচ্চ ৫১ গোলের মালিক হন জিরুড।

জিরুডের রেকর্ড গড়া ম্যাচে দুর্দান্ত খেলেছেন এমবাপ্পে। সহজ দুটি গোল মিস না করলে পেতে পারতেন হ্যাটট্রিকও। একটি গোল করেছেন, অন্যকে দিয়ে গোলও করিয়েছেন। এর মধ্যে দিয়ে ফরাসিরা বিশ্বকাপে টানা ৫ জয়ের রেকর্ড গড়লো। গত বিশ্বকাপে শেষ ষোল থেকে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর আজ এই জয়।  মুহুর্মুহু আক্রমণে অস্ট্রেলিয়ার রক্ষণভাগ ছিল বিপর্যস্ত। যেখানে আর্জেন্টিনা ২৩টি আক্রমণ করেছে সেখানে অস্ট্রেলিয়া মাত্র ৪টি আক্রমণ করতে পারে। ম্যাচের ৫৩ শতাংশ সময় বল ছিল ফরাসিদের পায়ে।

এই জয়ে গ্রু ডি থেকে ফরাসিরা শীর্ষ স্থানে অবস্থান করছে। পরের দুই স্থানে আছে ড্র করা তিউনিশিয়া-ডেনমার্ক। সবার শেষে অস্ট্রেলিয়া। এই জয়ের ধারা বজার রাখতে পারবেতো ফ্রান্স?

এম/

আরো পড়ুন:

টিভিতে দেখুন আজকের খেলা (২৩নভেম্বর ২০২২)

- Advertisement -

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফলো করুন

25,028FansLike
5,000FollowersFollow
12,132SubscribersSubscribe
- Advertisement -

সর্বশেষ